এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদির সভায় জনপ্লাবন, উচ্ছ্বসিত বিজেপি, ভালো ফলের আশায় মরিয়া ঝাঁপ প্রচারে

মোদির সভায় জনপ্লাবন, উচ্ছ্বসিত বিজেপি, ভালো ফলের আশায় মরিয়া ঝাঁপ প্রচারে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলাই যে তাদের প্রধান পাখির চোখ, তা বহুদিন আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছে বিজেপির রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। দেরিতে হলেও বাংলার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে জোর প্রচার শুরু করে দিয়েছেন বিজেপি প্রার্থীরা। সম্প্রতি বাংলাকে প্রধান টার্গেট করা বিজেপির পক্ষ থেকে উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়ি এবং কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে আনা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে।

আর এই দুটি সভাতেই সাধারণ মানুষের উচ্ছাস এবং উপস্থিতি দেখেই গেরুয়া শিবিরের অনেকেই মনে করতে শুরু করেছেন যে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তারা বাংলা থেকে যে 22 থেকে 23 টি আসন টার্গেট করেছে, তার থেকেও হয়ত বেশি আসন এবার তাদের দখলে আসতে পারে।

কেননা সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া শিলিগুড়ি এবং কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সভায় প্রচুর মানুষের সমাগম হয়েছিল। আর এই জনসমাগমই এই রাজ্যের ক্ষেত্রে বিজেপির কাছে অত্যন্ত আশার কারণ হতে চলেছে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির ভোট স্ট্র্যাটেজিস্ট সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব বলেন, “2014 সালের লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশ যে চমক দিয়েছিল, 2019 সালে সেই নয়া উত্তর প্রদেশ হতে চলেছে বাংলা। পশ্চিমবঙ্গ এবার তুমুল সারপ্রাইজ দেখাবে।”

অন্যদিকে মোদিজীর কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশের সঙ্গে ইন্দিরা গান্ধীর ব্রিগেড সমাবেশের তুলনা করে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এরাজ্যে বেশকটি আসন নিজেদের দখলে রাখবে বলে আশা প্রকাশ করতে দেখা গেছে বাংলার দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে।তবে বিজেপি নেতাদের এহেন বক্তব্যকে অবশ্য পাত্তা দিতে নারাজ শাসক দল।

তৃণমূলের দাবি, জনসমাগম মানেই ভোটবাক্সে তার প্রতিফলন নয়। বিজেপি যদি এই জনসমাগমের উপর ভিত্তি করেই ভাবে যে তারা বাংলায় দাগ কাটতে পারবে, তাহলে তারা মূর্খের স্বর্গে বাস করছে বলে মত শাসকদল তৃনমূলের। অন্যদিকে ভবিষ্যতে ফের নরেন্দ্র মোদী বাংলায় সভা করতে আসবেন। আর সেই সভা থেকে শাসকদলের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে বাংলায় গেরুয়া ঝড়কে আর তীব্র থেকে তীব্রতর করে তুলবেন বলে মত বিরোধী দল বিজেপির।

সব মিলিয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির সভায় জনপ্লাবন দেখে এরাজ্য থেকে বেশ কটি আসন নিজেদের ঝুলিতে পোড়ার আশা দেখতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। তবে শেষ পর্যন্ত গেরুয়া শিবিরের এই আশা সার্থকতা লাভ করে তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী 23 মে পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!