এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মহাজোটে বড় ধাক্কা দিতে নয়া পদক্ষেপ নিতে চলেছেন মোদি সরকার

মহাজোটে বড় ধাক্কা দিতে নয়া পদক্ষেপ নিতে চলেছেন মোদি সরকার

রাজনীতির অংক বড়ই কঠিন। কে কাকে কখন কোন দিক দিয়ে টেক্কা দেবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেন না কেউই। আর এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে নিজেদের ভোটব্যাংকে আরও শক্ত করতে এক কৌশলী পদক্ষেপ নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির। যে পদক্ষেপের দ্বারা একদিকে সাপও মরবে, আর অন্যদিকে লাঠিও ভাঙবে না বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু কি সেই গেম প্ল্যান?

সূত্রের খবর, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের সাথে সাথেই দেশের আটটি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের প্রক্রিয়াকে সম্পন্ন করতে চাইছে বিজেপি। যার মধ্যে উড়িষ্যা, অন্ধ্রপ্রদেশ, অরুণাচল এবং সিকিম বিধানসভা যেমন রয়েছে, ঠিক তেমনি এই সমস্ত বিধানসভার পাশাপাশি মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড, হরিয়ানা এবং জম্মু-কাশ্মীরের বিধানসভা ভোটও লোকসভার সময়ই করিয়ে নিতে চাইছে বিজেপির মোদি- শাহ জুটি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনের সময়ে উড়িষ্যা, অন্ধ্রপ্রদেশ, অরুণাচল এবং সিকিমের বিধানসভা ভোট হলেও মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড, হরিয়ানা এবং জম্মু কাশ্মীর রাজ্যের ভোটে কিছুটা দেরি রয়েছে। তবে অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে লোকসভার সময়েই এই চার রাজ্যের নির্বাচন প্রক্রিয়াকে সম্পন্ন করার পক্ষে সায় দিচ্ছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। কিন্তু হঠাৎ এই প্ল্যানিং কেন? বিশেষজ্ঞদের মতে, একবার লোকসভা নির্বাচন হয়ে গেলে সেখানে যদি বিজেপি খারাপ ফলাফল করে পরবর্তীতে সেই খারাপ ফলাফলের রেশ সেই রাজ্যের বিধানসভা ভোটগুলিতেও পড়তে পারে।

তাই রিস্ক না নিয়ে একেবারেই লোকসভার সাথেই বিধানসভা নির্বাচন করে দিতে চায় তাঁরা। অন্য দিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অনেক দিনের ইচ্ছে রয়েছে যে, এই দেশে “এক দেশ এক নির্বাচন” প্রথা চালু করার। তাই এই লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে আট রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন করে সেই প্রক্রিয়ার দিকেই এগোতে চায় বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তুমি শুধু এই দুই ব্যাপারেই নয়, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশজুড়ে বিজেপিকে ঠেকাতে গড়ে ওঠা বিরোধী মহাজোটকেও ধাক্কা দিতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের এই গেমপ্ল্যান বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

কেননা এই সমস্ত রাজ্যে যদি লোকসভা নির্বাচনের সাথে সাথেই বিধানসভা নির্বাচন করা হয় তাহলে জাতীয় রাজনীতি অপেক্ষা নিজেদের রাজ্যে নিজেদের ঘাঁটিকে শক্ত করতে সেই দিকেই মন দেবে বিরোধী জোটে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন রাজ্যের বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলো।

সেই দিক থেকে জাতীয় ক্ষেত্রে সেই বিরোধী মহাজোট অনেকটাই ধাক্কা খাবে এবং যার ফলে লাভবান হবে গেরুয়া শিবির। অন্যদিকে যদি জাতীয় ক্ষেত্রে বিজেপিকে সরানো সেই আঞ্চলিক দলগুলোর মূল চ্যালেঞ্জ হয়, তাহলে সেই সমস্ত রাজ্যগুলিতে বিজেপি টার্গেট করে যদি বেশি সংখ্যক আসন নিতে পারে তাহলে গেরুয়া শিবিরও সেই সমস্ত আঞ্চলিক দলগুলোর ওপর চাপ বাড়াতে পারবে।

আর সেই দিক থেকে অনেকটাই লাভবান হবে বিজেপি। তাই এবারে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের সাথে সাথে একাধিক রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন সম্পন্ন করে দিতে চাইছেন কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রের এই স্বপ্ন কতটা সফলতার রুপ পায় এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!