এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাংলায় মোদির দূত, বড়সড় সাংগঠনিক পরিবর্তনের লক্ষেই বৈঠক-জল্পনা তুঙ্গে

বাংলায় মোদির দূত, বড়সড় সাংগঠনিক পরিবর্তনের লক্ষেই বৈঠক-জল্পনা তুঙ্গে

সামনেই লোকসভা ভোট। এমতাবস্থায় বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বরা বারবার যেখানে নির্দেশ দিচ্ছেন দলীয় সংগঠনকে মজবুত করতে,সেখানেই ছোট খাটো ব্যাপার নিয়ে দলীয় নেতৃত্বদের পারস্পরিক মতবিরোধ প্রকাশ্যে আসছে। এর জেরে দলের মধ্যে অপ্রত্যাশিত ফাটল তো তৈরি হচ্ছেই, এমনকি দলীয় ভাবমূর্তিও নষ্ট হচ্ছে। মোদীজির দুজন দূত আসছেন বাংলায়।

কৈলাশ বিজয়বর্গীয় এবং শিবপ্রসাদ-এই দুজন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষককেরই আজ কোলকাতার একটি হোটেল বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বদের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা। প্রাথমিক পর্যায়ে রাজ্য বিজেপির যাঁরা অফিস বিয়ারার পদে বহাল রয়েছেন তাঁদের মধ্যে দুজনের পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। তবে লোকসভা ভোটের আগ অব্দি রাজ্য বিজেপির সভাপতি পদ থেকে দিলীপ ঘোষকে সরানো হবে না বলেই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এরপরের ধাপে কী চান,সেটা এখনো প্রকাশ করেননি। এ প্রসঙ্গে বিজেপির এক রাজ্য নেতা এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন যে, বেশ কিছুদিন ধরে নাকি রাজ্য বিজেপি দলের নামে অপপ্রচার করছেন। অনেকে আবার রাজ্য সভাপতির নামেও সমালোচনা করেছেন। এতে দলেরই বদনাম হচ্ছে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা বিষয়টি তদারক করছেন। এখন তাঁরা যা সিদ্ধান্ত নেবেন এ ব্যাপারে, সেটাই চূড়ান্ত হবে।

উল্লেখ্য, দলীয় অন্তর্দ্বন্দ্ব বেশ কিছুদিন ধরে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠায় জেলার নেতাদের উপর রীতিমতো অসন্তুষ্ট রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ ব্যাপরে সুরাহা করতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে রিপোর্টও দিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। তার জেরে বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন নেতৃত্বদের রদবদল হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এমটাও জানা গেছে, যেসব জেলা সভাপতি দলীয় স্তরে দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে মতামত রেখেছেন তাঁদের অপসারণেরই আশঙ্কা বেশি। এই ইস্যু নিয়ে বুধবার রাজ্যের পদ্মবাহিনীর সেনাপতি একটি গোপন বৈঠকও করেন বলেই জানা গেছে রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে। আপাতত রাজ্য বিজেপির এই সাংগঠনিক পরিবর্তন নিয়ে দলীয় অন্দরেই তীব্র চাপানউতোর চলছে।

যদিও দলীয় কোন্দলে নিজেই জড়ালেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ । এদিন মোদীজির মেদিনীপুরের জনসভাকে কেন্দ্র করে এরকমই এক ঘটনার নজির দেখা গিয়েছিলো। জানা গেছে,এই সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নামার পরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় এনং রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের মধ্যে জরালো তর্কাতর্কি বেঁধে গেছিলো। সেটা ক্যামেরাবন্দিও হয়েছে। এরপর এই ইস্যু নিয়ে বিজেপির এ দুজন বিশিষ্ট নেতৃত্ব একে অপরকে কটু কটাও শুনিয়েছেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!