এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদিকে রুখতে সব রকমের স্বার্থ ত্যাগ করতে রাজি ভাইপো অখিলেশ

মোদিকে রুখতে সব রকমের স্বার্থ ত্যাগ করতে রাজি ভাইপো অখিলেশ

কথায় আছে “শত্রুর শত্রু আমার বন্ধু”।এবার উত্তরপ্রদেশে সেই নীতিকে ঢাল করেই এগোতে চান সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ যাদব। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের উপনির্বাচন গুলেতে মোদী বিরোধীতায় একজোট হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়ে সাফল্য পেয়েছিল অখিলেশের সমাজবাদী পার্টি ও মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি। সূত্রের খবর, 2019 এও এইভাবেই একজোট হয়ে লড়তে চান অখিলেশ। রবিবার মইনপুরিতে গিয়ে সমাজবাদী পার্টির এই নেতা বলেন, ” বিএসপির সঙ্গে আমাদের জোট 2019 এও থাকবে। এমনকী এর জন্য যদি আমাদের কিছু আসন ছাড়তে হয় তাহলে ছেড়ে দেব। কিন্তু যে কোনো উপায়ে বিজেপিকে পরাজিত করতেই হবে।” গেরুয়া শিবির সূত্রে খবর, সম্প্রতি কৈরানা লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে সপা, বসপা জোটের কাছে পর্যদস্তু হতে হয় তাঁদের। এমনকী উত্তরপ্রদেশে বিজেপির সরকার থাকা সত্তেও যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কেন্দ্র গোরক্ষপুর ও উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যের ফুলপুর কেন্দ্র থেকে জয়লাভ করেছে সপা-বসপার জোট তাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্য,র মোদীর কাছে তিরস্কারের স্বীকার হতে হয়েছে সেখানকার বিজেপি নেতাদের।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তবে এই বিজেপি বিরোধী জোট যে আরও চাপে রাখতে চলেছে কেন্দ্রের মোদী সরকারকে তা সমাজবাদী পার্টির আছিলেশ যাদবের বক্তব্য থেকেই স্পষ্ট। এদিন অখিলেশ যাদব বলেন, “আমি খুব বাস্তববাদী। আমার দিক দিয়ে বলতে পারি আমি বিএসপি এসপি জোট ভাঙব না।এই জোট খুবই গুরুত্বপূর্ন।এর জন্যে যদি দু পা পেছোতে হয়,তাতেও আমি রাজি।” তবে অখিলেশ এই জোট চাইলেও 2018 এ তাঁদের সাথে একছোট হয়ে মায়াবতীর দল লড়বেন কি না সে বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি বহুজন সমাজবাদী পার্টির তরফে।
এদিকে মায়াবতী অখিলেশের এই জোট নিয়ে তাদেরকে তীব্র কটাক্ষ করেছে বিজেপি। এ প্রসঙ্গে গেরুয়া শিবিরের মন্তব্য, ” বুয়া (মায়াবতী) এবং বাবুয়া(অখিলেশ যাদব) মিলে বিজেপিকে শেষ করবে এটা দিবাস্বপ্ন। এই জোট 2019 এর আগেই ভেঙ্গে যাবে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!