এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোবাইলের সঙ্গে আধার বিচ্ছিন্নকরণ নিয়ে বড়সড় ঘোষণা সামনে এল

মোবাইলের সঙ্গে আধার বিচ্ছিন্নকরণ নিয়ে বড়সড় ঘোষণা সামনে এল

কেন্দ্রের সমস্তক্ষেত্রে আধার বাধ্যতামুলক করায় অসুবিধায় পরতে হয়েছিল দেশের আম-জনতাকে ।আর তা নিয়ে মামলা হয়েছিল শীর্ষ আদালতে । আর এবার আধার মামলায় সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছে যে, সব ক্ষেত্রে আধার বাধ্যতামুলক নয়। কোন কোন ক্ষেত্রে আধার বাধ্যতামুলক আর কোন ক্ষেত্রে নয় তা এখন স্পষ্ট। আদালতের নির্দেশ অনুসারে মোবাইল নম্বরের সাথে আধার সংযোগ এখন থেকে আর বাধ্যতামূলক নয় আর এর পর থেকেই নতুন সিম বিক্রির ক্ষেত্রে আধার তথ্যের বাধ্যতামূলক ব্যবহার বন্ধ হয়েছে। এমনকি এ বার থেকে কোনো গ্রাহক চাইলে তাঁর মোবাইল নম্বর থেকে আধার বিচ্ছিন্ন করার আর্জিও জানাতে পারবেন। আধার কর্তৃপক্ষ (ইউআইডিএআই) ও টেলিকম দফতর (ডট) আশ্বাস দিয়েছে যে,কোনো গ্রাহক আর্জি জানালে আধার তথ্য মুছবে সংশ্লিষ্ট টেলিকম সংস্থা।

আধার মামলার রায়ের পরেই টেলিকম শিল্প মহল জানিয়েছিল, ডটের নির্দেশ মেনেই সিমের সঙ্গে আধার সংযোগের কাজ শুরু করেছিল তারা। তাই তা বিচ্ছিন্ন করা যাবে কি না, এবিষয়ে ডটই সিদ্ধান্ত নেবে। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে টেলি পরিষেবা সংস্থাগুলির সঙ্গে একটি বৈঠকও করে ডট ও ইউআইডিএআই। পরে তারা জানায়, গ্রাহকের আবেদন পেলেই আধার বিচ্ছিন্ন করবে সংস্থাগুলি।

শনিবার টেলিকম সংস্থাগুলির সংগঠন সিওএআইয়ের ডিজি রাজন এস ম্যাথুজ বলেন, ”গ্রাহক টেলি সংস্থার কাছে আবেদন জানালে তাঁর মোবাইল নম্বরের গ্রাহক-পঞ্জি থেকে আধার তথ্য (নতুন বা পুরানো, যে কোনও সিম) মুছে ফেলা হবে। তবে পরিচয় ও ঠিকানা যাচাইয়ের জন্য ডট স্বীকৃত বিকল্প নথি (ভোটার কার্ড, পাসপোর্ট ইত্যাদি) দিতে হবে তাঁকে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো  করুন এই লিঙ্কেখবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক

কিন্তু এখন প্রশ্ন যাঁরা আগেই সেই সব নথি জমা দিয়ে সিম কিনেছিলেন এবং পরে সেই সিমের সঙ্গে আধার যুক্ত করেছিলেন, আধার মুছতে চাইলে তাঁদেরও কেন ফের নথি দিতে হবে? ম্যাথুজ বলেন, ”কারণ, আধার সংযোগের পরে গ্রাহকের পুরনো নথির তথ্য আর সংশ্লিষ্ট সংস্থার কাছে নেই। এখন আধার তথ্যও মুছে দিলে নতুন নথির প্রয়োজন হবে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!