এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দলের ফাটল স্পষ্ট, ক্রমে ব্রাত্য হচ্ছেন এই বিধায়ক, রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে ফের জল্পনা

দলের ফাটল স্পষ্ট, ক্রমে ব্রাত্য হচ্ছেন এই বিধায়ক, রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে ফের জল্পনা

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের পর থেকেই যত দিন যাচ্ছে, ততই যেন শক্তিহ্রাস হচ্ছে তৃনমূলের। একের পর এক দলীয় জনপ্রতিনিধি তৃনমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। যার জেরে অস্বস্তিতে পড়ছে ঘাসফুল শিবির। আর এই পরিস্থিতিতে তৃনমূলের অন্দরে কার্যত দোদুল্যমান অবস্থায় থাকা বিধাননগর পৌরসভার মেয়র তথা তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে নিয়ে বিতর্ক যেন কিছুতেই থামছে না।

কিছুদিন আগেই এই সব্যসাচী দত্তের বাড়িতে গিয়ে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের লুচি- আলুর দম খাওয়াকে কেন্দ্র করে চরম চাঞ্চল্য তৈরি হয়। আর এরপরই সব্যসাচীবাবুর বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মন্তব্যে অস্বস্তিতে পড়তে থাকে তৃণমূল। আর এবার কি তাহলে এই সব্যসাচী দত্তকেই সরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেল তৃণমূলে!

সূত্রের খবর, এদিন সল্টলেকের সেক্টর ফাইভের 36 নম্বর লিঙ্ক রোডের উদ্বোধন অনুষ্ঠান ছিল। আর সেখানেই কলকাতার মেয়র তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, বিধাননগরের তৃণমূল বিধায়ক তথা মন্ত্রী সুজিত বসু সহ বিধাননগরের কিছু কাউন্সিলরকে দেখতে পেলেও আশ্চর্যজনকভাবে এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতেই দেখা গেল না বিধাননগর পৌরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তকে। আর এই ঘটনা নিয়েই এবার তৈরি হয়েছে জল্পনা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, এদিনের এই রাস্তা উদ্বোধনে নিউটাউনের বাসিন্দাদের জন্য একটি টোল ফ্রি নম্বরেরও উদ্বোধন করেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী। আর বিধাননগর পৌর এলাকায় অনুষ্ঠান হওয়া সত্বেও সেখানে কেন মেয়র অনুপস্থিত থাকলেন তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা। অনেকেই বলছেন, দলে থেকে বিভিন্ন সময় নানা মন্তব্য করে দলকে অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছেন সব্যসাচী দত্ত। আর তাইতো এদিনের অনুষ্ঠানে তিনি ব্রাত্যই রয়ে গেলেন।

এদিকে এদিনের এই অনুষ্ঠানে তার অনুপস্থিতি প্রসঙ্গে এদিন দলেরই এক কাউন্সিলর সুভাষ বসুর বিরুদ্ধে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে সরব হতে দেখা যায় সব্যসাচী দত্তকে। যেখানে সেই দলীয় কাউন্সিলর সুভাষ বসুর বিরুদ্ধে প্রোমোটারকে টাকা দেওয়ার অভিযোগ করেন সব্যসাচী বাবু। কিন্তু এই ব্যাপারে পাল্টা মেয়রের মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে বলে গোটা ঘটনাকে নস্যাৎ করে দেন সেই সুভাষ বসু।

কিন্তু সব্যসাচী দত্তের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত না থাকার কারণ কি! এদিন এই ব্যাপারে অনুষ্ঠানের উদ্বোধক রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে প্রশ্ন করলেও তিনি তা সম্পূর্ণরূপে এড়িয়ে গিয়েছেন। সব মিলিয়ে এবার বিধাননগরের মেয়র তথা তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্তর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে ফের জল্পনা তৈরি হল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!