এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মিশন বেঙ্গলের লক্ষ্যে রাজ্যের প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে নজরদারি চালাবেন খোদ অমিত শাহ

মিশন বেঙ্গলের লক্ষ্যে রাজ্যের প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে নজরদারি চালাবেন খোদ অমিত শাহ

সারাদেশে যখন বিজেপি বিরোধী হাওয়া উঠতে শুরু করেছে ঠিক তখনই 2019 এ কেন্দ্রে ফের নিজেদের সরকারকেই বসাতে উদ্যোগী হয়েছেন নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ। আর এজন্য এখন বিভিন্ন রাজ্যের বুথ ভিত্তিক সংগঠনের ওপরেই ভরসা রাখতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এবারের লোকসভায় এই বাংলাকে একটু অন্য চোখে দেখছেন অমিত শাহ।

রাজ্যে এসে বারে বারে দলীয় নেতাদের জনসংযোগ বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এমনকি এই বাংলা থেকেই যে 22 টি আসন নিজেদের ঝুলিতে পুরতে হবে সেই ব্যাপারেও রাজ্য নেতৃত্বকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় বিজেপি।কিন্তু শুধু নির্দেশ দেওয়াই নয়, এবারে সরাসরি এই রাজ্যের সংগঠনে নজর রাখতে চলেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

সূত্রের খবর, বাংলার 42 টি লোকসভা কেন্দ্রে এবার 42 টি কমিটি তৈরি করছে বঙ্গ বিজেপি। জানা গেছে, এই কমিটিতে প্রতি জেলার 30 জন করে সদস্য থাকবেন। যাদের মূল কাজই হবে, মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ এবং বুথ ভিত্তিক সংগঠনকে বাড়ানো। তবে রাজ্যর তরফে কমিটি গড়ার উদ্যোগ নিলেও তার রাশ নিজেদের হাতেই রাখতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি। আর তাইতো জেলার দায়িত্বে থাকা নেতারা সমস্ত রিপোর্ট কেন্দ্রের কাছেই পাঠাবেন বলে স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

এমনকি প্রয়োজনে জেলার দায়িত্বে থাকা নেতাদের সঙ্গে সমস্ত বিষয় নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সও করতে পারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। রাজনৈতিক মহলের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে এই বাংলায় পদ্ম ফোটাতে আর রাজ্য নেতৃত্ব নয়, বরঞ্চ রাজ্যের সংগঠনকে বৃদ্ধি করতে নিজেদের হাতেই সমস্ত দায়িত্ব নিতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কেননা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যেই রাজ্যকে পাখির চোখ করেছেন সেইখানে যাতে নির্বাচনী প্রস্তুতিতে কোনো রকম খামতি না থাকে তার জন্য সবরকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন অমিত শাহ। সব মিলিয়ে এখন রাজ্যের সংগঠনকে বাড়াতে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের নজরদারি ঠিক কতটা কাজ দেয় এখন সেদিকেই তাকিয়ে বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!