এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মন্ত্রীর দাদার বাড়ি থেকে উদ্ধার জোড়া মৃতদেহ, উত্তেজনা এলাকায়

মন্ত্রীর দাদার বাড়ি থেকে উদ্ধার জোড়া মৃতদেহ, উত্তেজনা এলাকায়

Priyo Bandhu Media

গতকাল রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা প্রয়াত অসীম ঘটকের স্ত্রী ও কন্যার দেহ আসানসোলের হিন্দুস্তান পার্কের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় যা ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা যাচ্ছে যে, মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা প্রয়াত অসীম ঘটকের স্ত্রী জয়শ্রী ও তাঁর মেয়ে নিলমের দেহ উদ্ধার হয় এদিন।

এই নিয়ে এলাকাবাসী জানান যে, অসীম ঘটকের বাড়িতে তরি-তরকারি পৌঁছতে আসেন ইজাজ নামে এক যুবক। দরজায় ধাক্কা দেন কিন্তু খেউ খোলেনি, অন্যদিকে দুর্গন্ধ বের হতে থাকে ঘরের ভেতর থেকে। আর এরপরেই ওই যুবকের সন্দেহ হলে তিনি প্রতিবেশীদের খবর দেন তারাও দুগন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

আসানসোলের পুলিশ এসে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দুটি দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। পুলিশের প্রাথমিকভাবে অনুমান, দু-তিনদিন আগে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে।তাঁদের শরীরে পোড়ার দাগ পাওয়া গেলেও মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি এখনো।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

জানা যাচ্ছে যে, জয়শ্রী ঘটক ও কস্তুরী ঘটক একাই থাকতেন, মলয় ঘাতক বা তাঁর ভাই অভিজিৎ ঘটকের সঙ্গেও তাঁদের কোনও যোগাযোগ ছিল না এমনটাই দাবি এলাকাবাসীদের। শুধু তাই নয় অসীম ঘটক ২০১৭ সালে মহালয়ের দিন তর্পণ করতে গিয়ে মারা যান তখনও নাকি স্বামীর মৃতদেহ বাড়িতে ঢোকাতে দেননি জয়শ্রী ঘটক এমনটাই দাবি প্রতিবেশীদের। এমনকি
প্রতিবেশীদের সঙ্গে তাঁরা যোগাযোগ রাখতেন না বলেই জানা গেছে ,

এদিকে মলয় ঘটক কলকাতায় ছিলেন খবর পেয়ে তিনি আসানসোলে এসেছেন। অসীম ঘটকের মৃত্যু স্বাভাবিক ছিল না এমনকি তাঁর স্ত্রী, কন্যার মৃত্যুও স্বাভাবিক হল না সব মিলিয়ে জোর উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত করে দেখছে আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!