এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মিড-ডে মিলের নজরদারিতে এবার কড়া পদক্ষেপের পথে রাজ্য সরকার – জানুন বিস্তারিত

মিড-ডে মিলের নজরদারিতে এবার কড়া পদক্ষেপের পথে রাজ্য সরকার – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের সমস্ত স্কুলগুলিতে মিড ডে মিলের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিভিন্ন জায়গা থেকে অভিযোগ আসে যে, অনেক কারণে প্রায়শই বিভিন্ন স্কুলের মিড ডে মিলের প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। যার জেরে সমস্যায় পড়েন সেখানকার শিক্ষার্থীরা। তাই এবারে সেই মিড ডে মিলের নজরদারিতে সব স্তরে পাঁচ সদস্যের কমিটি তৈরি করতে উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকার।

জানা গেছে, রাজ্যস্তর থেকে স্কুলস্তর পর্যন্ত এই নজরদারি কমিটি তৈরি করা হবে। এতদিন ধরে এই মিড ডে মিলের নজরদারিতে থাকা মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি যেমন রাজ্যস্তরে মিড ডে মিলের কাজ পর্যবেক্ষণ করত সেই রকমই করবে। তবে স্কুলের এই নজরদারি কমিটির মাথায় থাকবেন প্রধান শিক্ষকেরা।

 

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু এই নতুন কমিটি ঠিক কি পদ্ধতিতে তৈরি হল? সূত্রের খবর, জেলা কমিটিতে এই মিড ডে মিলের নজরদারির জন্য যেমন জেলাশাসক, ডিপিও, ডিআইদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তেমনি এবার থেকে মহুকুমা স্তরেও একটি কমিটি করা হবে। যার মাথায় থাকবেন মহকুমা শাসক এবং এসডিও।

অন্যদিকে ব্লক স্তরে কমিটির একদম ওপরে রাখা হবে ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক বা বিডিওকে। তবে এই ব্লক বা জেলা কমিটির মধ্যেও সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মিড ডে মিলের নজরদারির জন্য তৈরি এই স্কুল কমিটি। মিড ডে মিল ঠিকমত সন্তানেরা পাচ্ছেন কিনা তা নজরদারি করতে পারবেন অভিভাবকেরাও।

এদিন এই প্রসঙ্গে বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক স্বপন মন্ডল বলেন, “রাজ্য সরকার উদ্যোগ নিয়েছে সেটাকে আমরা স্বাগত জানাই। কিন্তু মিড ডে মিলের বন্টন এবং আনুষঙ্গিক বিষয়ে শিক্ষকদের জড়িত না থাকার একটি আবেদন আমাদের রয়েছে। সেই দাবি থেকে আমরা সরব না।” সব মিলিয়ে এবার মিড ডে মিলের নজরদারিতে কড়া পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার।

আপনার মতামত জানান -
Top