এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নতুন দপ্তর হাতে নিয়েই এবার কর্মী নিয়োগ নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রীর বিশ্বস্ত সেনাপতি – জানুন বিস্তারিত

নতুন দপ্তর হাতে নিয়েই এবার কর্মী নিয়োগ নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রীর বিশ্বস্ত সেনাপতি – জানুন বিস্তারিত

Priyo Bandhu Media

নতুন দপ্তরের দায়িত্বে এসেই দমকল কর্মীর পদে মহিলাদের নিয়োগ করার বড়সড় সিদ্ধান্ত নিলেন দপ্তরের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। দেশের কোনো রাজ্যেই দমকল কর্মী হিসাবে মহিলাদের নিয়োগ করা হয় না,তাই এই সিদ্ধান্ত দেশে দৃষ্টান্ত হবে,এমনটাই জানালেন মন্ত্রী।

গতকাল সন্ধ্যায় দমকল দপ্তরের প্রধান সচিব খলিল আহমেদ, ডিজি জগমোহন, দমকলের ডিরেক্টর সমীর চৌধুরীর সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন দপ্তরের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বৈঠকের পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, দমকলের শূন্যপদের নিরিখে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলা কর্মীও নিয়োগ করা হবে। এ বিষয়ে ক্যাবিনেট তুলে পাশ করানোর পর নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে বলে জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ হাকিম।

এ প্রসঙ্গে দমকল দপ্তরের এক কর্তা জানান,বিদেশের অনুকরণে এদেশেও দমকল দপ্তরে মহিলা নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে মহিলাদের ঘটনাস্থলে পাঠালে আগুন নেভানোর কাজ তাঁরাও সক্ষমতার সঙ্গে করবেন,এমনটাই বিশ্বাস দমকল দপ্তরের আধিকারিকদের।

দমকল দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী, গত এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত রাজ্যে ৪৬২৯ টি অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। বামআমলে রাজ্যে ১০০ টি দমকল কেন্দ্র তৈরি হয়েছিল কিন্তু তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর গত সাত বছরে আরো ৪২ টি দমকল কেন্দ্র তৈরি হয়েছে। এদিনের বৈঠকে কর্মী নিয়োগ সংক্রান্ত আলোচনার পাশাপাশি আধুনিক মেশিন কেনা বা বর্তমানে যেগুলো রয়েছে,সেগুলোকে আরো উন্নতমানের করে গড়ে তোলার বিষয়েও আলোচনা করা হয়েছে।

বিপত্তি এড়াতে বৈঠকে আরো আধুনিক মানের এবং উঁচু ল্যাডার দপ্তরে আনার বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। এদিনের বৈঠকে মন্ত্রী বহুতল কমপ্লেক্স, কমার্শিয়াল কমপ্লেক্স, শপিং মল, অফিস কমপ্লেক্সে প্রতি বছর ফায়ার অডিট করার জন্যে নিয়োগ করার নির্দেশ দেন দপ্তরের প্রধান সচিব খলিল আহমেদকে। প্রতিবছর সংশ্লিষ্ট জায়গাগুলো সেই অডিটররাই অডিট করবে এবং সেগুলো নির্দিষ্ট সময়ে দমকল দপ্তরেও জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

সেই রিপোর্টের ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, আদৌ ফায়ার লাইসেন্স দেওয়া বা পুনর্নবীকরণের প্রয়োজন রয়েছে কিনা। এরইসঙ্গে বহু মানুষ জমায়েত হওয়া স্থানগুলো অর্থাৎ শপিং মল বা বাণিজ্যিক বহুতল বা অন্য জায়গাগুলির কর্তৃপক্ষকে তিন মাস অন্তর ফায়ার ড্রিল বাধ্যতামূলকভাবে করার কথা জানান তিনি। সেই ড্রিলের রিপোর্ট স্থানীয় দমকল স্টেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকের কাছে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। ওই ড্রিলে কী কী করা হয়েছে, কোথায় কোথায় গলদ রয়েছে,কোন কোন দিকের উপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া জরুরি বলে কর্তৃপক্ষ মনে করছে,সেগুলোর বিস্তারিত তথ্য থাকবে। গোটা বিষয়টির পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে থাকবেন দমকল মন্ত্রী।

অডিট এবং ড্রিলের পাশাপাশি বহুতল বা শপিং মল, অফিস বা বাজারের কোথায় কোথায় জলের সংযোগ, স্মোক ডিটেক্টর, অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র রয়েছে, আপৎকালীন রাস্তা বা দরজা কোথায় রয়েছে, তা উল্লেখ বা জায়গা চিহ্নিত করে প্রবেশদ্বারের কাছে বাধ্যতামূলকভাবে মানচিত্র রাখার বিষয়টিও ঠিক করা হয়েছে এদিনের বৈঠকে। তবে তিনি দপ্তরের কর্মী-আধিকারিকদের কাজে উৎসাহ জুগিয়ে বলেন,যে নিষ্ঠার সঙ্গে তাঁরা কাজ করছেন তাতে তিনি সন্তুষ্ট।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে উন্নয়নের স্বার্থে কিছু কিছু জায়গায় প্রয়োজনীয় পরিবর্তন বা আধুনিকীকরণ বাঞ্ছনীয়, এমনটাই মনে করেছেন নতুন দমকল মন্ত্রী।তবে লোকসভা ভোটের আগে দমকল দপ্তরের কর্মী নিয়োগে এবার থেকে মহিলাদের সুযোগ করে দেওয়ার ঘোষণাটি করে একরকম চমকই দিয়ে দিলেন ফিরহাদ হাকিম। মন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত লোকসভা ভোটব্যাঙ্কে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!