এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মেয়রের বিবাহবিচ্ছেদ মামলায় নতুন মোড়,মামলায় আর শুনানি চান না বিচারপতি!

মেয়রের বিবাহবিচ্ছেদ মামলায় নতুন মোড়,মামলায় আর শুনানি চান না বিচারপতি!

মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের দাম্পত্য সমস্যা নিয়ে কম জলঘোলা হচ্ছে না রাজ্য রাজনৈতিক স্তর সহ প্রচারমাধ্যমে। দীর্ঘদিন ধরে  হাইকোর্টে মামলা চলছে শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিবাহ বিচ্ছেদের। তবে এবার হাইকোর্টের বিচারক তাঁর এজলাসে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের দায়ের করা বিবাহ বিচ্ছেদের মামলার শুনানি আর চান না। তিনি এই মামলা পাঠিয়ে দিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলা ও দায়রা জজ রবীন্দ্রনাথ সামন্তের এজলাসে। এ নিয়ে ফের একবার তীব্র গুঞ্জন শুরু হল।

এদিন স্ত্রী রত্নাদেবীর বিরুদ্ধে আনা বিবাহ বিচ্ছেদের মামলার শুনানি ছিল আলিপুর ষষ্ঠদশ অতিরিক্ত জেল ও দায়রা বিচারক শান্তনু মিশ্রের এজলাসে। কোর্টে সঠিক সময়ে বিশেষ বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে হাজির হতে দেখা যায় শোভনবাবুকে। বন্ধ এজলাসে মামলার শুনানির সময় রত্নাদেবীর পক্ষের আইনজীবীরা দাবী করেন,মামলা চালানোর জন্য  তাঁরা শোভনবাবুর কাছে যে ১৫ লক্ষ টাকা চাওয়া হয়েছিলো আগে সে আবেদনের শুনানি হোক। তারপর মূল বিবাহ বিচ্ছেদ মামলার প্রসঙ্গে আসা যাবে। এ নিয়ে জোর তরজা শুরু হয় দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে। এমনটাই জানা গেল,আদালত সূত্রের খবর থেকে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

মেয়রের পক্ষের আইনজীবী ইন্দ্রনীল বসু,সন্দীপ পাঠক পাল্টা যুক্তিতে জানান, উক্ত আবেদনে শোভনবাবু রাজি হলেও তা নিয়ে ভাবনা চিন্তার জন্য রত্নাদেরীর তরফ থেকে কিছুটা সময় চাওয়া হয়েছিল। এতে নাকি শোভন বাবুর পক্ষই আপত্তি জানিয়েছিল প্রথমে। তবে এ দাবী সম্পূর্ণই অস্বীকার করে মেয়র পত্নীর আইনজীবীরা যুক্তিতে জানান যে,কোনো শুনানিতে অংশগ্রহন করতে হলে কিছুটা সময় লাগবে এটাই তো স্বাভাবিক। এরকম পরিস্থিতির জেরে  একসময় তীব্র উষ্মা প্রকাশ করতে দেখা গেল বিচারককে। তিনি মামলার শুনানিতে অংশ নিতে আপত্তিও জানালেন রীতিমতো এবং তাঁর এজলাসে এই মামলার শুনানি না চালানোর সিদ্ধান্তের কথাও জানিয়ে দেন। এবং বলেন মামলাটি আলিপুরের মুখ্য জেলা জজের এজলাসে স্থানান্তরিত করতে। এমনটাই জানালেন,মেয়রের আইনজীবী ইন্দ্রনীল বাবু। এখন মুখ্য জেলা জজ কোন এজলাসে এই মামলার শুনানির জন্য পাঠান,সেটা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করতে দেখা গেল আইনজীবীদের এদিন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!