এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেয়রের ব্যক্তিগত সমস্যার জেরে পুরসভায় আটকে ২২ হাজার স্থায়ী কর্মীর পদ!!

মেয়রের ব্যক্তিগত সমস্যার জেরে পুরসভায় আটকে ২২ হাজার স্থায়ী কর্মীর পদ!!

পুরসভায় মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ধারাবাহিক ভাবে অনুপস্থিতির জেরে স্থগিত হয়ে রয়েছে পুরসভার ২২ হাজার কর্মীর স্থায়ী পদ বিষয়ক সিদ্ধান্ত। পুরসভা সূত্রের খবর, পুরসভাতে মোট স্থায়ী পদের সংখ্যা ৪৫ হাজার। বর্তমানে স্থায়ী পদে কর্মরত আছেন ২৩ হাজার এবং বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে নিয়োগ করা অস্থায়ী কর্মীর সংখ্যা ১৩ হাজার। রাজ্য সরকার কেবলমাত্র সরকার অনুমোদিত পদের জন্য বেতন দেয়। বাকি অস্থায়ী কর্মীদের পুরসভার গাঁটের টাকা থেকে বেতন দিতে হয়। পুরসভার এই আর্থিক চাপ কমাতে গত বছর উচ্চ পর্যায়ে বৈঠকে বসেন মেয়র। স্থায়ী-অস্থায়ী কর্মীদের পুনর্গঠন এবং বিষয়টি পুরো ও নগরোন্নয়ন দফতরে পাঠিয়ে সেই নীতি আগামী অর্থবর্ষে কার্যকরী করার কথা তিনি এই বৈঠকে বলেন। কিন্তু অর্থবর্ষ এসে গেলেও তাঁর অনুপস্থিতির জেরে এই নিয়মই তৈরি হয়নি বলে জানা গেছে। এদিন পুরসভার এক কর্তা জানান”পুর প্রশাসন পরিচালনার ক্ষেত্রে সার্বিক কর্মী-নীতি স্থির করা এবং স্থায়ী-অস্থায়ী পদের পুনর্গঠন ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু মেয়র নিয়মিত না আসায় কিছুই এগোয়নি বিষয়টা।” জানা গেছে পুরো-বাজেটের পর থেকেই পুরসভায় অনুপস্থিত মেয়র। বাজেটের আগেও অনিয়োমিতই ছিলেন শোভনবাবু। প্রতি মাসের পুরো প্রকল্পের অগ্রগতি ও খরচ বিষয়ক বৈঠকেও তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। এদিন তিনি পুরভবনে গেলেও কর্মী পদের পুনর্গঠন বিষয়ক কোনো আলোচনাই হয় নি বলে সূত্রের খবর। এ বিষয় প্রশ্ন উঠলে এদিন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ জানান, ”বিষয়টি নিয়ে পরে কথা বলব।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!