এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মেদিনীপুরে মোদীর সভা ঘিরে অনিশ্চয়তা, অভিযোগের তীর তৃনমূলের দিকে

মেদিনীপুরে মোদীর সভা ঘিরে অনিশ্চয়তা, অভিযোগের তীর তৃনমূলের দিকে

আগামী 16 ই জুলাই রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিজেপি সূত্রের খবর, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা ফসলের নূন্যতম সহায়ক মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়াতেই প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানোর জন্য মেদিনীপুর কলিজিয়েটে মাঠে বিজেপির উদ্যোগে এক “কৃষক কল্যান সমাবেশ” আয়োজন করা হয়েছে। যা নিয়ে প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে চরমে। এদিপ বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় সেই সভাস্থল ঘুরে দেখেন।জানা গেছে, চার লক্ষ বর্গফুট এলাকা জুড়ে এই সভা হবে। বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে লোহার কাঠামোর ওপর অত্যাধুনিক ত্রিপল দিয়ে এলাকা মুড়িয়ে দেওয়ারও পরিকল্পনা করা হয়েছে। কিন্তু এত সব পরিকল্পনা যার জন্য সেই সভার লিখিত অনুমতিই এখনও বিজেপিকে দেয়নি মেদিনীপুর জেলা প্রশাসন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এ প্রসঙ্গে প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দলীপ ঘোষ বলেন, “এর আগে মোহন ভাগবত, অমিত শাহর সভার জন্য অনুমতি চাইলেও প্রশাসন এইভাবেই টালবাহানা করেছে।শুক্রবার জেলাশাসকের কাছে লিখিত ভাবে আবেদন জানালেও এখনও কোনোও উত্তর মেলেনি। প্রধানমন্ত্রীর সভা ঘিরে প্রশাসন চরম অসৌজন্যতা দেখাচ্ছে।” অন্যদিকে এ ব্যাপারে রাজ্য প্রশাসনের এক শীর্ষকর্তা মনে করেন, এত কম সময়ের মধ্যে একজন ভিভিআইপির সমস্ত নিরাপত্তার দিক পরিচালনা করা অসম্ভব। আর বিজেপির তরফ থেকে শুক্রবার চিঠি এলেও শনি ও রবিবার ছুটি থাকায় কোনোও রুপ কাজ করা সম্ভব নয়। এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সভাস্থল পরিদর্শন করতে আজই মেদিনীপুর যাচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সহ একাধিক নেতারা। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী প্রথমে বিমানে করে কলাইকুন্ডায় নেমে সেখান থেকে হেলিকপ্টারে সভাস্থলে আসবেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, এবার প্রধানমন্ত্রীর সভার অনুমতি দেওয়া নিয়ে প্রশাসন আর বিজেপির স্নায়ুযুদ্ধে শেষপর্যন্ত কে শেষ হাসি হাসতে পারে সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!