এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > মতুয়া গড়ে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলতে কি এবার বিজেপির প্রার্থীই হবেন তৃণমূলের সাংসদের সতীনের মেয়ে? জোর জল্পনা রাজ্যে

মতুয়া গড়ে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলতে কি এবার বিজেপির প্রার্থীই হবেন তৃণমূলের সাংসদের সতীনের মেয়ে? জোর জল্পনা রাজ্যে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রটি দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছে গেরুয়া শিবির। কিন্তু এখনও পর্যন্ত বিজেপির প্রার্থী তালিকা ঘোষণা না হওয়ায় সেই বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী কে হবে তা নিয়ে এখন রাজ্য রাজনীতিতে শুরু হয়েছে প্রবল জল্পনা।

সূত্রের খবর, সম্প্রতি মতুয়া মহাসংঘের বড়মা বীণাপাণি দেবীর শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে সেই বীণাপাণি দেবীর ছেলে মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুরের বাড়িতে গিয়ে মঞ্জুরের ছেলে শান্তনু ঠাকুরের সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছেন বিজেপির কৈলাস বিজয়বর্গীয়। আর সেখানেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী কে হবে তা নিয়ে ভেসে উঠেছে এক নতুন নাম।

জানা গেছে, নিজের জেঠিমা তথা বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূলের বিদায়ী সাংসদ তথা বর্তমানে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুরের বিরুদ্ধে সেই মমতাবালারই স্বামী কপিল কৃষ্ণ ঠাকুরের প্রথম পক্ষের স্ত্রী আমলা ঠাকুরের মেয়ে সিলভিয়ানের নাম বিজেপির প্রার্থী হিসেবে প্রস্তাব করেছেন শান্তনু ঠাকুর। আর এখান থেকেই শুরু হয়েছে নানা জল্পনা।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, শান্তনু ঠাকুরের এই প্রস্তাব যদি বিজেপি গ্রহণ করে তাহলে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুরের বিরুদ্ধে সেখানে সেই মমতাবালারই সতীনের মেয়ে সিলভিয়ান পোদ্দারকে দাড় করিয়ে তৃণমূলকে জোর টক্কর দেবে বিজেপি।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, প্রথমে এই ঠাকুরবাড়ি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করলেও গত লোকসভা ভোটে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রে প্রয়াত বড়মা বীণাপাণি দেবীর বড়ছেলে কপিল কৃষ্ণ ঠাকুরকে প্রার্থী করে সেখান থেকে তাঁকে সাংসদ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এর কয়েক মাসের মধ্যেই সেই কপিলকৃষ্ণ ঠাকুরের মৃত্যু হলে তার স্ত্রী মমতাবালা ঠাকুরকে উপনির্বাচনে জিতিয়ে এনে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ করেন তৃণমূল নেত্রী।

অন্যদিকে ঠাকুর পরিবারের আরেক সদস্য বড়মা বীণাপাণি দেবীর আরেক ছেলে মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর প্রথমে তৃণমূলের বিধায়ক মন্ত্রী থাকলেও পরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেয়। আর এতেই ঠাকুর পরিবার শাসক বনাম বিরোধীতে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে যায়। সব মিলিয়ে এবার ঠাকুর পরিবারে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূলের প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুরের বিরুদ্ধে সেই মমতাবালা ঠাকুরেরই সতীনের কন্যাকে দাঁড় করাতে চাইছে বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -
Top