এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পুরুলিয়ায় ভাঙ্গন আটকাতে বিশেষ ‘দাওয়ায়’ মানস ভূঁইয়ার

পুরুলিয়ায় ভাঙ্গন আটকাতে বিশেষ ‘দাওয়ায়’ মানস ভূঁইয়ার

রাজনীতি নিয়ে সচেতন লোকজন মনে করাচ্ছেন, পুরুলিয়া জেলার তৃণমূল নেতা থেকে বহু কর্মীর সঙ্গে মুকুল রায়ের একসময়ে ভাল যোগাযোগ ছিল। অন্য দিকে, নব্য ও আদি তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে বিভাজনও এই জেলায় প্রকট। তার উপরে এই জেলায় বিজেপি প্রভাব বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই মুকুলে বাবুর বিজেপিতে যোগদানের প্রেক্ষিতে পুরুলিয়ায় তৃণমূলের সংগঠন আরও আঁটোসাঁটো করা দরকার হয়ে পড়েছে। একই সঙ্গে পুরনো কর্মীরা যাতে পঞ্চায়েত ভোটের আগে বসে না যান কিংবা মুকুলে বাবুর পথ অনুসরণ যাতে না করেন, তা নিয়ে তৎপরতা শুরু হয়েছে তৃণমূলে।
আর তাই দলের পঞ্চায়েতিরাজ সম্মেলনে মূল বক্তা তথা রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভুইঁয়াও জানালেন, দলের পুরনো কর্মীদের ব্রাত্য না রেখে তাঁদের নিয়েই কাজ করতে হবে। সঙ্গে তৃণমূলের অন্য নেতারা যোগ করেন, পুরনো কর্মীরাই দলের সম্পদ। নতুন নেতা-কর্মীরা দলকে সমৃদ্ধ করেছেন ঠিকই, কিন্তু দীর্ঘ লড়াই আন্দোলনের মাধ্যমে দলের ভিত মজবুত করে তৈরি করেছেন পুরনো কর্মীরাই। যদিও দলেরই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু নেতার বক্তব্য, মুকুল রায় পুরুলিয়ার তৃণমূলের পুরনো কর্মীদের জানেন বলেই তাঁদের গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হচ্ছে, এমনটা ভাবার কোনও অবকাশই নেই। বিভিন্ন কারণে নিষ্কিয় হয়ে পড়া কর্মীদের আরও উজ্জীবিত করতে দলই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!