এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ফের বিতর্কে মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়, সহকর্মীদের তালাবন্ধ করে রাখায় অভিযুক্ত

ফের বিতর্কে মানবী বন্দ্যোপাধ্যায়, সহকর্মীদের তালাবন্ধ করে রাখায় অভিযুক্ত

ছাত্র – শিক্ষক সংঘাতের বিষয়ে কম বেশি সকলেই অবগত। কিন্তু অধ্যক্ষ এবং অধ্যাপক-অধ্যাপিকাদের মধ্যে সংঘাতের ঘটনা শুধু কমই নয় বরং বিরল বলাই শ্রেয়।  ঘটনাস্থল নদীয়ার কৃষ্ণনগর উইমেন্স কলেজে। এখানেই নিয়মিত ক্লাস না নেওয়ার অভিযোগে ১৮জন অধ্যাপক-অধ্যাপিকাকে স্টাফরুমে তালা লাগিয়ে স্বয়ং কলেজেরই অধ্যক্ষা। শুধু তাই নয় অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের সাথে তাঁদের  ব্যাগ-সহ অন্যান্য ব্যবহার্য্য জিনিসপত্রও আটকে রাখা হলো। ঘটনার সূচনা হয় শুক্রবার দুপুরে। এদিনই ঐ কলেজের অধ্যাপক-অধ্যাপিকারা , কলেজের অধ্যক্ষার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে বললেন, অধ্যক্ষা এই কলেজে আসার পর থেকেই তাঁদের সঙ্গে সহযোগিতা করেন না । 

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এমনকি, তাঁদের বদলি বা প্রমোশনের ক্ষেত্রে চুড়ান্ত অসহযোগীতা করছেন অধ্যক্ষা। অধ্যক্ষা পদাধিকারী হয়েও তিনি প্রতিদিন কলেজে উপস্থিত থাকেন না। অধ্যক্ষার জন্যই কলেজের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে বলে এদিন অধ্যাপক-অধ্যাপিকারা দাবি করলেন। এইরকম একাধিক বিষয়ে অভিযোগ জানিয়ে কলেজে অধ্যাপক অধ্যাপিকারা  জেলাশাসকের সঙ্গেও দেখা করেন বলেও জানা গেল । এদিকে কলেজের অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের অভিযোগে পালটা অভিযোগ এনে অধ্যক্ষা মানবী বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ” ক্লাস না নিয়ে জেলাশাসকের কাছে যাওয়ায় ক্ষতি হয়েছে পড়ুয়াদের। ক্লাস না নিয়ে, না জানিয়ে কলেজে দীর্ঘক্ষণ না থাকায় স্টাফরুমে তালা দিয়েছি অধ্যাপক-অধ্যাপিকাদের।” এছাড়া ও অধ্যক্ষা জানিয়েছেন বেতন নিয়ে কাজ না করার এমন অভিরুচিকে কোনো মতেই প্রশ্রয় দেওয়া হবেনা। অধ্যক্ষার মতে তিনি কলেজের অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের কাজের ক্ষেত্রে অবহেলাকে কড়া হাতে নিয়ন্ত্রন করতে চাইছেন বলেই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছে। তবে এদিন অধ্যক্ষার সাথে অধ্যাপক অধ্যাপিকাদের মতান্তরের জেরে  ১৮ জন অধ্যাপক-অধ্যাপিকাদেরকে সারারাত কলেজেই থাকতে হয়। এই ঘটনার খবর পেয়ে পরদিন কৃষ্ণনগর থানার পুলিশ কলেজে হাজির হয়। তবে বিষয়টির এখনও অবধি কোনো সমাধান হয়নি বলেই জানা গিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!