এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “মমতা এক্সপায়ারি সিএম” – কটাক্ষ হেভিওয়েট নেতার, জেনে নিন বিস্তারিত

“মমতা এক্সপায়ারি সিএম” – কটাক্ষ হেভিওয়েট নেতার, জেনে নিন বিস্তারিত

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বনাম বিজেপির নরেন্দ্র মোদির লড়াই সকলেই প্রত্যক্ষ করেছে। বাংলায় যখন 42 এ 42 এর স্লোগান তুলে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীকে, ঠিক তখনই তার পাল্টা অনুন্নয়ন ইস্যুতে সেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও খোঁচা দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

এমনকি পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, তৃণমূল নেত্রীকে স্পিড বেকার বলে নরেন্দ্র মোদি কটাক্ষ করলে পাল্টা নরেন্দ্র মোদিকে “এক্সপায়ারি পিএম” বলে কটাক্ষ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এমতাবস্থায় লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বপ্ন পূরণ না হওয়া এবং বিজেপির এই রাজ্যে প্রবল উত্থান ঘটার পরই তৃণমূল নেত্রী এখন কড়া ভাষায় সমালোচনা করতে শুরু করেছেন বঙ্গ বিজেপির হেভিওয়েট নেতারা।

একসময় যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নরেন্দ্র মোদিকে এক্সপায়ারি প্রাইম মিনিস্টার বলে উল্লেখ করেছিলেন, সেই নরেন্দ্র মোদীই এখন দেশের প্রধানমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলায় 42 টি আসনের মধ্যে 42 টি আসনের স্লোগান তুললেও তাদের দখলে এসেছে মোটে 22 টি আসন। আর তাই এই পরিস্থিতিতে সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক্সপায়ারি সিএম বলে কটাক্ষ করতে দেখা গেল বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, রবিবার হাওড়া শরৎ সদনে মধ্য হাওড়া বিধানসভার কর্মী সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মেদিনীপুরের সাংসদ তথা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর সেখানেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হন তিনি।

এদিন রাজ্যে লাগাতার ঘটে চলা হিংসা প্রসঙ্গে মুখ খুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, “এই রাজ্যের সরকারের প্রশাসনের উপর কোনো নিয়ন্ত্রন নেই। যেভাবে রোজ মৃত্যু ঘটছে, বোমা, বন্দুক, গুলি চলছে, তাতে এই প্রশাসন আর কতদিন টিকবে তা সন্দেহের ব্যাপার। প্রথম মোদি সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠ থাকা সত্বেও মুখ্যমন্ত্রী তাকে এক্সপায়ারি প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন। কিন্তু বাংলায় ভোটের ফলাফল বলছে, মানুষের আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর আস্থা নেই। তাই আমিও বলি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক্সপায়ারি মুখ্যমন্ত্রী।”

অনেকে বলছেন, আসলে কথার মধ্যে দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই জবাব দিলেন দিলীপ ঘোষ। কেননা ভোটের প্রচারে যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদিকে এক্সপায়ারি প্রাইম মিনিস্টার বলে কটাক্ষ করেছিলেন, ভোটের ফলাফলে সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভরাডুবি হওয়ায় তাকেই পাল্টা এক্স চিফমিনিস্টার বলে উল্লেখ করে খোঁচা দিতে চাইলেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি।

অন্যদিকে ভোট পরবর্তী সময়ে রাজ্যে যতগুলো হিংসার ঘটনা ঘটেছে এবং যত মানুষ খুন হয়েছে, তার প্রতিটা ক্ষেত্রেই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা দিয়ে তদন্ত করা হোক বলেও দাবি জানান দিলীপ ঘোষ। তবে বিজেপির হেভিওয়েট নেতার এই দাবিকে মানতে নারাজ ঘাসফুল শিবির। তাদের দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার এখনও সংখ্যাগরিষ্ঠ।

তাই একজন রাজনৈতিক নেতা হয়ে এরকম কথা বলার সাহস কি করে পান দিলীপ ঘোষ! সব মিলিয়ে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে “এক্সপায়ারি সিএম” বলে কটাক্ষ করে রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!