এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অনন্য নজির গড়ে মমতা সরকারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবার রাস্তায় দাঁড়ালেন খোদ রাজ্যের এই মন্ত্রী

অনন্য নজির গড়ে মমতা সরকারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবার রাস্তায় দাঁড়ালেন খোদ রাজ্যের এই মন্ত্রী

অনন্য নজির গড়ে মমতা সরকারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবার রাস্তায় দাঁড়ালেন খোদ রাজ্যের এই মন্ত্রী,শহরে ভ্যান-বোঝাই আনাজ নিয়ে ফেরি করছেন কৃষিমন্ত্রী। এ দিন সকালে রামপুরহাট শহরের জিতেন্দ্রলাল পৌরমন্দিরে রাস্তায় দাঁড়িয়ে রিকশা-বোঝাই বাঁধাকপি, শাক বিক্রি করলেন খোদ রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী। কৃষি দফতরের রামপুরহাট ২ ব্লকের সহ-অধিকর্তা তথাগত দাস ও সংশ্লিষ্ট কৃষি খামারের কর্মীরা জানান, জৈব সারের উপযোগিতা ও পতিত জমি ফেলে না রেখে কৃষকদের চাষে উত্সাহ দিতেই এই উদ্যোগ। এদিন তাঁর পাশে ছিলেন কৃষি দফতরের আধিকারিকেরা। স্বয়ং কৃষিমন্ত্রীর আনাজ বিক্রির খবর ছড়াতেই অনেকেই জিতেন্দ্রলাল পৌরমন্দিরে ভিড় জমান। এবং আধঘণ্টায় বিক্রি হয়ে যায় সব কিছু।
মন্ত্রী বলেন, ”মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন, রাজ্যের কোথাও অব্যবহৃত কৃষিজমি ফেলে রাখা যাবে না। চাষের কাজে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার, কৃষকদের বিকল্প চাষে উত্সাহ দিতে কৃষি দফতর তত্পর।” এরপর তিনি আরো জানান, কৃষি দফতর আলোচনাসভা থেকে সচেতনতা শিবিরের আয়োজন করছে জমিতে জৈব সারের ব্যবহার বাড়াতে। রাজ্যের বিভিন্ন কৃষি খামারের অব্যবহৃত জমিতে সম্পূর্ণ জৈব পদ্ধতিতে আনাজ, ফল চাষ করা হচ্ছে। এবং সেই সকল আনাজ বিক্রি করে পরবর্তী চাষেরও ব্যবস্থা করা হবে। এবং সেই জন্যেই রামপুরহাট ২ ব্লকের কৃষি খামারে ১০ কাঠা জমিতে ফুলকপি, বাঁধাকপি, শাক চাষ করা হয়েছে।
এবার এই জৈব পদ্ধতিতে চাষ করে খামারের অব্যবহৃত জমি কাজে লাগানোর পরিকল্পনা কতটা সার্থক হয় সেটাই দেখার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!