এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আন্দোলনরত চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার জন্য ফের মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

আন্দোলনরত চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার জন্য ফের মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

এনআরএস কান্ড এবং জুনিয়র চিকিৎসকদের লাগাতার ধর্মঘটের জেরে বর্তমানে রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় অচলাবস্থা তৈরী হয়েছে। প্রায় প্রত্যেকেরই এখন একটাই দাবি যে, আন্দোলনকারী চিকিৎসকদের সঙ্গে একবার কথা বলে আসুন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী। আর এইখানেই তৈরি হয়েছে সমস্যা। শাসক বনাম চিকিৎসকদের এই দড়ি টানাটানিতে এখন চরম হতাশায় ভুগছেন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর আত্মীয় পরিজনরা।

সম্প্রতি এই ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান তথা রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকে। জানা গেছে, গত শুক্রবার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে একটি পরামর্শ চিঠি দেন রাজ্যপাল। কিন্তু তাতেও বরফ গলেনি। এমনকি রাজ্যপালের দপ্তর থেকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার জন্য শুক্রবার তাকে ফোন করা হয়। তবে নবান্নের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, মুখ্যমন্ত্রী বাইরে রয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

কিন্তু পরবর্তীতে রাজ্যপালের কাছে আর কোনোরূপ ফোনও আসেনি নবান্ন থেকে। যা নিয়ে তৈরি হয় বিতর্কও। বিরোধীদের একাংশ দাবি করেন, আসলে ইগো ছেড়ে সমস্যা সমাধান করার কোনো সদিচ্ছাই নেই সরকারের। আর তাই তো মুখ্যমন্ত্রী এই ব্যাপারে কোনরূপ সদর্থক ভূমিকাই পালন করছেন না। আর এবার পরিস্থিতি হাতের বাইরে বেরিয়ে যাওয়ায় শুক্রবারের পর শনিবার ফের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। কিন্তু কি রয়েছে চিঠিতে?

জানা গেছে, চিকিৎসকদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করার পাশাপাশি নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসকদের নিগ্রহের ঘটনার জন্য দ্রুত তদন্তের ব্যাপারে সরকারকে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন রাজ্যপাল। শুধু তাই নয়, আন্দোলনকারীদের সাথে যেন মুখ্যমন্ত্রী দেখা করেন এদিনের চিঠিতে সেই পরামর্শও দিয়েছেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান। তবে শুক্রবারের পর ফের শনিবার রাজ্যের স্বাস্থ্যব্যবস্থায় অচলাবস্থা কাটাতে প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে সাংবিধানিক প্রধানের চিঠিতে এখন বরফ গলে কিনা, সেই দিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!