এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিধানসভায় গিয়ে মমতা ব্যানার্জিকে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়ে শোরগোল ফেলে দিলেন মুকুল রায়

বিধানসভায় গিয়ে মমতা ব্যানার্জিকে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়ে শোরগোল ফেলে দিলেন মুকুল রায়



অনেকদিন পর বিধানসভায় উপস্থিত ছিলেন এককালের তৃণমূলের দুই নম্বর আজকের বিজেপি নেতা মুকুল রায়। আর বিধানসভায় দাঁড়িয়ে এদিন তিনি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে বিজেপিতে যোগদানের স্বাগত জানিয়ে শোরগোল ফেলে দিলেন।

এদিন তিনি বলেন বিজেপিতে স্বাগত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল নেত্রী যদি বিজেপিতে যোগদান করতে চান তবে তাকে স্বাগত। প্রসঙ্গত আজ বিধানসভায় হাজির হন মুকুল রায়। তিনি বেশ খোশ মেজাজেই ছিলেন। সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সময় তিনি হঠাৎ বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিজেপিতে স্বাগত। তবে তাকে দলের নিয়ম মেনেই আসতে হবে। পার্টির নীতি আদর্শ মেনে যদি নেত্রী বলেন আমি ভারতীয় জনতা পার্টি করব ,তাহলে আমার ধারণা কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে সমর্থন করবেন।

স্বাভাবিকভাবেই কারো বুঝতে বাকি নেই তিনি এককালের তার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিকে কটাক্ষে তীর ছুড়লেন এবং তিনি যখন বিধানসভা কক্ষের বাইরে একটি ঘরের মধ্যে এই কথা বলছেন তখন বিধানসভার ভেতরে কিন্তু উপস্থিত ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু কেন বললেন এই কথা মুকুল রায় তা নিয়ে কিন্তু জল্পনা শুরু হয়ে গেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

যদিও মুকুলবাবু এর সাথে বলেন এই সরকার কতদিন থাকবে তা নিয়ে মন্ত্রীরা কি বলছে সেগুলো আগে খুঁজে বের করুন। মুকুল রায়ের দাবি করেন তৃণমূলের অনেক বিধায়ক নেতা-নেত্রীরা ভিতরে ভিতরে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। আর তারা খুব শীঘ্রই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসতে চাইছেন। তাই তৃণমূল সরকার থাকবে সেটাই এখন দেখার।

প্রসঙ্গত কয়েকদিন ধরেই বিধানসভার তৃণমূল বিজেপির নেতা-নেত্রীদের সাক্ষাৎকার ঘিরে ছড়িয়েছিল জল্পনা। কয়েকদিন আগেই বিধানসভায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘরে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ হাজির হয়েছিলেন একটা দাবি নিয়ে। শিক্ষামন্ত্রী আশ্বস্ত করেছিলেন তাঁর দাবি মেনে নেওয়ায় হবে বলে কিন্তু দিলীপবাবু কিছু বলেননি সাংবাদিকদের উত্তরে। শুধু জল্পনা বাড়িয়ে বলেছিলেন অনেকদিন পর দেখা হল তাই কুশল বিনিময় করলাম। আর সেখানেও জল্পনা ছড়িয়েছিল।যদিও এই নিয়ে এখনো পর্যন্ত তৃণমূলের তরফ থেকে কিংবা মুখ্যমন্ত্রী তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!