এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > তৃণমূলের মমতা-মুকুল জোটও হার বাঁচাতে পারল না বিজেপির ভারতীর কাছে!

তৃণমূলের মমতা-মুকুল জোটও হার বাঁচাতে পারল না বিজেপির ভারতীর কাছে!

বাংলায় সদ্য শেষ হয়ে গেল পঞ্চায়েত নির্বাচন। সেই নির্বাচন ঘিরে যেরকম একের পর এক বিতর্ক হয়েছে, যেরকম রাজনৈতিক সমীকরণ বদলেছে মুহুর্মুহু, তেমনই ঘটেছে বেশ কিছু ‘মজার’ ঘটনা। তেমনই এক ঘটনা – বিজেপির ভারতীর কাছে তৃণমূলের মমতা-মুকুল জোটের হার! তাও আবার মাত্র ১৪ ভোটের ব্যবধানে! এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে মেদিনীপুর সদর ব্লকের জেলা পরিষদের এক আসনে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী ছিলেন মমতা মুর্মু আর মেদিনীপুর সদর ব্লকের তৃণমূল নেতা মুকুল সামন্ত ছিলেন মমতা দেবীর নির্বাচনী এজেন্ট। ওই জেলা পরিষদ আসনের অন্তর্গত, মেদিনীপুর সদর ব্লকের শিরোমণি গ্রাম পঞ্চায়েতের বাড়ুয়ার একটি আসনে প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন বিজেপির ভারতী মুর্মু।

জেলা পরিষদের আসনে মামাতাদেবী জিতে গেলেও, বাড়ুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের যে আসনে বিজেপির ভারতীদেবী দাঁড়িয়েছিলেন সেখানে তিনি ভারতীদেবীর থেকে ১৪ টি ভোট কম পান। ভারতী দেবী গ্রাম পঞ্চায়েতের আসনেও জয়ী হন। আর এই নিয়েই শুরু হয়েছে রাসিকজনের মজার মজার টিপ্পনি। কেননা মমতা বা মুকুল বললেই আমরা রাজ্য-রাজনীতির হেভিওয়েট নেতা-নেত্রীদের বুঝি, অন্যদিকে বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতী ঘোষও রাজ্য-রাজনীতিতে বেশ একটি চর্চিত নাম এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর ‘দূরত্ত্ব’ এখনো বেশ আলোচনার বিষয়। তবে, পশ্চিম মেদিনীপুর এসব ভুলে বলছে, নির্বাচন আসলে তো বাঙালির কাছে বেশ একটা উৎসবের মত, সেখানে কাউকে কোনো রকম সম্মানহানি করতে নয়, বরং একটু নির্মল রসিকতা খুঁজে নিতেই নাম নিয়ে এই টিপ্পনি চলছে, যা দলমত নির্বিশেষে বেশ উপভোগ করছেন স্থানীয় মানুষ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!