এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মুখমন্ত্রীর করা মন্তব্য নিয়েই মমতাকে প্যাঁচে ফেলে মুকুলের মাস্টারস্ট্রোক

মুখমন্ত্রীর করা মন্তব্য নিয়েই মমতাকে প্যাঁচে ফেলে মুকুলের মাস্টারস্ট্রোক

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূলের ভরাডুবি হয়েছে। অন্যদিকে গতবার বিজেপি এই রাজ্য থেকে দুটি আসন পেলেও এবার তাদের দখলে এসেছে 18 টি আসন। আর রাজ্যে তৃণমূলের এই ফলাফলের পেছনে সংখ্যালঘু সমাজের তোষনকেই দায়ী করছেন অনেকে।

তবে তৃণমূলের এহেন বিপর্যয়ে শনিবার কালীঘাটের বাসভবনে রাজ্যের সমস্ত জেলার দলীয় নেতৃত্বদের নিয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুসলিম তোষণ নিয়ে একাংশ অভিযোগ করলে তার জবাব দেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন ইফতারে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ” আমি 100 বার ইফতারে যাব।যে গরু দুধ দেয়, তার লাথি খাওয়া উচিত।”

আর তৃনমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এহেন মন্তব্যকে কোট করে এবার পাল্টা শাসকদলের সর্বময় কত্রীর বিরুদ্ধে আক্রমণ হতে দেখা গেল বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য তথা বিজেপির বঙ্গ জয়ের অন্যতম কারিগর মুকুল রায়কে। এদিন তিনি বলেন, “তার মানে কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুসলিম সম্প্রদায়কে গরু বলে অভিহিত করলেন! আমার মনে হয় এই ব্যাপারটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের ভাবা উচিত।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় “যে গরু দুধ দেয় তার লাথি খাওয়া উচিত” বলে নিজেকে সর্ব ধর্মের প্রতীক হিসেবে যতই তুলে ধরার চেষ্টা করুন না কেন, মুসলিম সম্প্রদায়কে তিনি “গরু” বলে অভিহিত করেছেন – এই কথা তুলে পাল্টা তৃণমূল নেত্রীকেই চাপে ফেলে দিলেন মুকুল রায় বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

সাথেই  রাজনৈতিকবিশ্লেষকমহলের দাবি যে রাজ্যে বিজেপি এবার হিন্দু ভোটের অনেকটাই নিজেদের দখলে রেখেছে। সেখানে তৃণমূলের ভাঁড়ার অনেকটাই শুন্য । এদিকে তৃণমূলের মুখরক্ষা হয়েছে সংখ্যালঘু ভোটে। আর এদিন সেই ভোটের দিকেও হাত বাড়ালেন মুকুল রায় বলেই মনে করছেন রাজনৈতিকমহল।

বিরোধীরা বার বার দাবি করেছেন যে তৃণমূল নেত্রী সংখ্যালঘু তোষণ করেন শুধু ভোট পাবার জন্য। এদিকে তৃণমূলের তরফ থেকে তা বার বার অস্বীকার করা হলেও ভোটের ফলাফল বেরোনোর পর কালীঘাটের বৈঠকে নেত্রী দাবি করেন যে ” আমি 100 বার ইফতারে যাব। যে গরু দুধ দেয়, তার লাথি খাওয়া উচিত।”এদিকে এই নিয়ে সংখ্যালঘুরা যে ক্ষুব্ধ তা সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই রাখলেই দেখা যাচ্ছে। একের পর এক পোস্ট কমেন্ট এ এর বিরোধিতা চলছে।

এদিকে সেই ক্ষোভকে কয়েকধাপ এগিয়ে মুকুলবাবু শুধু বললেন যে “তার মানে কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুসলিম সম্প্রদায়কে গরু বলে অভিহিত করলেন! আমার মনে হয় এই ব্যাপারটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষের ভাবা উচিত।” ফলে সংখ্যালঘু ভোটে ভাঙ্গন ধরাতে এক ধাপ এগোলেন সুকৌশলে বলেই মত রাজনৈতিকমহলে।

অন্যদিকে দলের খারাপ ফলাফলের জন্য তৃণমূল নেত্রী এদিন প্রকাশ্যে পদত্যাগ করার ব্যাপারে জানিয়ে দিলেও গোটা ব্যাপারটাই “নাটক” বলে অভিহিত করেন মুকুল রায়। এমনকি খবরের কাগজের হেডলাইনের জন্যই তিনি এইসব করছে বলে অভিযোগ করেন বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য।

সব মিলিয়ে দলের খারাপ ফলাফলের পর ড্যামেজ কন্ট্রোল করতে প্রকাশ্যে সাংবাদিক বৈঠকে নানা ইস্যুতে মুখ খুললেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেইসব মন্তব্যকে ঘিরেই পাল্টা মন্তব্য করে তৃণমূল নেত্রীকে চরম বিপাকে ফেলে দিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!