এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এনআরসি নিয়ে মরিয়া মুখ্যমন্ত্রী এবার সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন

এনআরসি নিয়ে মরিয়া মুখ্যমন্ত্রী এবার সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন

২০১৪ সালে কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই সব থেকে উচ্চগ্রামে সারা ভারতবর্ষ জুড়ে যদি কেউ তাঁর বিরোধিতা করে থাকেন তাহলে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নোটবন্দী থেকে শুরু করে জিএসটি হয়ে বর্তমানে এনআরসি – সবেতেই নরেন্দ্র মোদী বিরোধিতা তীব্রতর জায়গায় নিয়ে গেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

কিন্তু এক সর্বভারতীয় সংবাদপত্রের বাংলা সংস্করনে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এর আগে যখন তিনি নোটবন্দী বা জিএসটি নিয়ে বিরোধিতা করেছিলেন তখন পাশে পেয়েছিলেন দেশের অন্যান্য বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে। কিন্তু এনআরসি বিতর্কে কার্যত তিনি এক, এমনকি বিজেপির প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসও এই প্রসঙ্গে মধ্যপন্থা নিয়েছে। ফলে প্রাথমিকভাবে এনআরসি নিয়ে তৃণমূল নেত্রী বা তাঁর দল কেন্দ্রের বিরোধিতায় গেলেও, এবার তিনি সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিতে চলেছেন।

ওই সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী আরো জানা যাচ্ছে, এনআরসি বিতর্কে অন্যান্য বিরোধী দলের সমর্থন পাওয়া দূরে থাক, যাঁদের নিয়ে তৃণমূল নেত্রী আন্দোলন করছেন, আসামের সেই বাঙালিদের একাংশই নাকি তাঁর এই পদক্ষেপে অখুশি। আর তাই তিনি এনআরসি নিয়ে আন্দোলনের পথ থেকে সড়ে এসে এই ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে তিনি প্রশাসনিক তদ্বির করতে চলেছেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

ওই সংবাদপত্রের আরো দাবি আগামী ২৮ শে আগস্ট তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মেয়ো রোডের সভায় নিজের বক্তব্য রেখেই দিল্লি উড়ে যাবেন। সেখানে আগামী ৩০ শে আগস্ট বিজেপি বিরোধী দলগুলির আগামী লোকসভা নির্বাচনে জোটগঠন নিয়ে বৈঠক আছে। সেই বৈঠকের পরে আগামী ৩১ শে আগস্ট বা ১ লা সেপ্টেম্বর যেদিন প্রধানমন্ত্রী সময় দেবেন সেদিনই মুখ্যমন্ত্রী তাঁর সঙ্গে বৈঠক করবেন।

যদিও এই খবরের সত্যতা বা সূত্র সম্পর্কে ওই সংবাদমাধ্যমে কিছু লেখা নেই, প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফেও এই খবরের সত্যতা যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের পরিপ্রেক্ষিতে করা, কোনোভাবেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!