এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মমতার গড়ে মা কালীর দখল পেতে ধুন্ধুমার 3 ক্লাবের অস্বস্তিতে প্রশাসন

মমতার গড়ে মা কালীর দখল পেতে ধুন্ধুমার 3 ক্লাবের অস্বস্তিতে প্রশাসন



মা কালীকে নিয়েও ঝগড়া। কে কোথায় প্যান্ডেলের গেট তৈরি করবে তাই নিয়ে ক্লাবে ক্লাবে সংঘর্ষ। তাও আবার যে সে জায়গায় নয় একেবারে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরের গোপালনগরে। আর তাতে নাম জড়িয়েছে বিতর্কিত তৃণমূল নেতা প্রকাশ সাহার। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেন, শনিবার রাতে শাসকদলের ওই নেতা দলবল নিয়ে একটি ক্লাবের পূজো মন্ডপে ঢুকে ভাঙচুর চালান।

উৎসবপ্রিয় বাঙালির ‘বারো মাসে তেরো পার্বণ’দুর্গাপুজো পেরোতে না পেরোতেই বেজে গেছে কালীপুজোর দামামা। শহরের বিভিন্ন প্রান্তে দীপাবলির প্রস্তুতির উদ্যোগে নেমে পড়েছে পুজো কমিটিগুলো। জায়গাতেই প্যান্ডেল ও তৈরির কাজও শুরু হয়ে গেছে।আরে কালীপুজোর গেট তৈরি করা নিয়ে ধুন্ধুমার কান্ড বেধে গেল আলিপুরের গোপালনগরে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, গোপালনগরে মোট তিনটি ক্লাবে কালী পুজো হয়।যার মধ্যে একটি ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত স্থানীয় তৃণমূল নেতা প্রতাপ সাহা।আর একটি ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত শাসকদলের আরও এক নেতা বিপ্লব মিত্র। আরেকটি ক্লাবের অবশ্য কোনো রাজনৈতিক পরিচয় নেই।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, রাস্তার পাশে বাঁশ দিয়ে একটি ক্লাবের সদস্যরা পুজো উপলক্ষে মন্ডপের গেট তৈরি করছিল।শনিবার রাতে স্থানীয় তৃণমূল নেতা প্রতাপ সাহা ও তাঁর সঙ্গীরা সেই গেট ভেঙে দেন।পাশাপাশি এই ঘটনায় আরেক নেতা বিপ্লব মিত্রও মদত দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। যদিও অভিযুক্ত নেতা প্রতাপ সাহা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!