এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এবার “মোদীকে পাঠানো কুর্তা” প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী, জেনে নিন কি বললেন তিনি

এবার “মোদীকে পাঠানো কুর্তা” প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী, জেনে নিন কি বললেন তিনি

Priyo Bandhu Media

জাতীয় রাজনীতিতে বর্তমানে তারা একে অপরের অহি-নকুল শত্রু হিসেবেই পরিচত।একজন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, আর আরেকজন বিজেপির হেভিওয়েট নেতা তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজবার পর থেকেই একদিকে যেমন বাংলার শাসক দল তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের মসনদ থেকে বিজেপিকে সরানোর জন্য জোর প্রচার চালাচ্ছেন, ঠিক তেমনই রাজ্যে এসে সেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচার করে গেরুয়া ঝড় তুলছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।

তবে রাজনীতিতে দুই দলের দুই হেভিওয়েট নেতা নেত্রী একে অপরের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেও সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে মুখ খুলে রীতিমতো শোরগোল তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন সেভেন, লোক কল্যাণ মার্গের বারান্দায় অক্ষয় কুমারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নরেন্দ্র মোদী নানা আলোচনার মাঝে তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, “বিরোধী শিবির হলেও মমতা ব্যানার্জি আমার জন্য বেছে বেছে কুর্তা পাঠান। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একবার আলোচনা হচ্ছিল। সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সেখানে ছিলেন। সেখানে তিনি আমার মিষ্টি প্রীতির কথা জানতে পারেন। আমাকে মাঝে মধ্যে উনি মিষ্টিও পাঠান।”

আর বিরোধী নেত্রী সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এহেন মন্তব্যে নানা মহলে শোরগোল পড়ে যায়। কিন্তু সত্যিই কি তাহলে মোদিজীর পছন্দ মত দুটি কুর্তা এবং মাঝেমধ্যেই মিষ্টি পাঠান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? এই নিয়ে যখন বিভিন্ন মহলে নানা জল্পনা চলছে ঠিক তখনই সেই প্রধানমন্ত্রী দাবিকেই কার্যত স্বীকার করে নিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, আজ বীরভূমের সিউড়ির নির্বাচনী জনসভা থেকে এই ব্যাপারটি কার্যত শিকার করে নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “উনি শুধু একটা নাম নিয়েছেন আমি তো অনেককে পাঠাই। জন্মদিনের কার্ড পাঠাই সকলকে, ওনাকেও পাঠাই। শুধু মোদি নয়, আমি অনেককেই কুর্তা পাঠাই, তফাত শুধু ওরা বলে আর আমি বলি না।” সাথেই প্রশ্ন তোলেন যে, “আমি না কি কুর্তা পাঠাই, পাঠালে দোষ কী আছে?”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, ভোটের মরসুমে মোদী বনাম মমতার এই রাজনৈতিক যুদ্ধের মাঝে সম্প্রতি নরেন্দ্র মোদি “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে মাঝে মধ্যে মিষ্টি এবং কুর্তা পাঠান” বলে জানালে অনেকেই এই ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করেন। কিন্তু এবার খোদ সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদির সেই মন্তব্যের সীলমোহর দেওয়ায় সেখানে আর কোনো দ্বিধায় রইল না বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!