এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিধানসভার আগে মমতার মাস্টারস্ট্রোক! এবার মিসডকল বা এসএমএসেই পাওয়া যাবে ৫ হাজার টাকা

বিধানসভার আগে মমতার মাস্টারস্ট্রোক! এবার মিসডকল বা এসএমএসেই পাওয়া যাবে ৫ হাজার টাকা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনেক প্রকল্পের কথা রাজ্যবাসীরা ভালোমতোই জানেন। তবে বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মহিলাদের জন্য অভিনব এমন একটি প্রকল্প এনেছেন, যার নজির অতীতে পাওয়া বিরল। জানা যাচ্ছে, স্বনির্ভর দলের মহিলাদের জন্য এবং সব দিক থেকে মহিলাদের স্বনির্ভর করার জন্য “জাগো” নামে একটি নতুন প্রকল্প সূচনা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। আর সবথেকে অভিনব বিষয় নতুন এই প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা পেতে কোনরকম প্রশাসনিক ঝক্কি পোহাতে হবে না মহিলাদেরকে।

কোনো অফিস কাছারিতে না গিয়ে, দুয়ারে দুয়ারে না ঘুরে নির্দিষ্ট একটি নাম্বারে মিসডকল করলেই মিলবে এই “জাগো” প্রকল্পের সুবিধা। 7773003003 এই নম্বরে মিসড কল করে অথবা জাগো টাইপ করে মেসেজ পাঠানো হলে প্রকল্পের অবস্থা জানতে পারবে উপভোক্তারা। প্রশাসন সূত্রের খবর, উক্ত এই প্রকল্পের জন্য রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই 500 কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। এছাড়াও স্বনির্ভর গোষ্ঠী গুলোকে 5 হাজার টাকা করে অনুদান দেবে রাজ্য সরকার।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা যাচ্ছে, বার্ষিক অনুদান হিসেবে টাকা দেওয়া হবে সরকারের দিক থেকে পঞ্চায়েত এবং গ্রাম উন্নয়ন বিভাগ, নগর উন্নয়ন এবং পৌর বিষয়ক বিভাগ, সংখ্যালঘু বিষয়ক বিভাগ, মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ এবং আদিবাসী বিভাগের সহযোগিতায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও স্বনিযুক্তি বিভাগ প্রকল্পটির দেখাশোনা করবে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন , ইতিপূর্বে কন্যাশ্রী, যুবশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, সবুজসাথী, রূপশ্রী ইত্যাদি প্রকল্প মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার মানুষের জন্য গ্রহণ করলেও, বর্তমানে “জাগো” প্রকল্পের পিছনে কাজ করছে প্রশান্ত কিশোরের রাজনৈতিক পরামর্শ।

যদিও স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে এই জাগো প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। তবুও মিসডকলের মাধ্যমে প্রকল্পের সুবিধা সাধারণ মানুষকে দেওয়ার এই নতুন পদ্ধতি যে প্রশান্ত কিশোরের মস্তিষ্কপ্রসূত, সেই বিষয়ে একমত প্রায় সকল বিশেষজ্ঞরাই। এখন দেখার বিষয়, নির্বাচনের ঠিক আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মাস্টারস্ট্রোকে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের প্রতি কতটা আস্থা বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয় সাধারণ মানুষ!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!