এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ডিলিট’-এর পর ‘ই-রত্ন’ সম্মান পাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ডিলিট’-এর পর ‘ই-রত্ন’ সম্মান পাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

‘ বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট ‘ -এর মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ‘ই-গভর্ন্যান্স’-এ অভূতপূর্ব সাফল্যর জন্য প্রশংসা শোনা গেছে দেশের বৃহৎ শিল্পপতিদের বক্তব্য।এবার সেই কৃতিত্বকে সম্মান জানাতে ‘ই-রত্ন’ সম্মান প্রদান করা হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। নবান্ন সূত্রে খবর, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে বিশেষভাবে স্বীকৃত “কম্পিউটার সোসাইটি অফ ইন্ডিয়া (সিএসসি) ” চিঠি দিয়ে এই খেতাব দেওয়ার কথা জানিয়েছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে ‘ডিলিট’ প্রদানের পর ‘ই-রত্ন’ মুখ্যমন্ত্রীর মুকুটে নতুন পালকের সংযোজন বলেই মনে করছে শাসক দল। যদিও বিরোধী শিবির এই নিয়ে যথেষ্ট ক্ষুদ্ধ। কিসের ভিত্তিতে এই সম্মান ? তা নিয়েও প্রশ্ন খাড়া করেছে তারা। প্রসঙ্গত , মুখ্যমন্ত্রীর ‘ডিলিট’ প্রাপ্তিকেও ভালো চোখে দেখেনি বিরোধী শিবির। সেক্ষেত্রে ‘ই-রত্ন’ নিয়ে শাসক -বিরোধী জলঘোলা কতদূর যায় তাও দেখার।

উল্লেখ্য, আগামী শনিবার সায়েন্স সিটি অডিটোরিয়ামে সিএসসি-র ৫২তম বার্ষিক সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ওই খেতাব প্রদান করা হবে মুখ্যমন্ত্রীকে।এমনটাই খবর। পাশাপাশি বাংলাকে দেওয়া হবে ২০১৭ সালের দেশের সেরা ‘ই-গভর্ন্যান্স রাজ্য'(সার্বিক বিকাশ) আওয়ার্ডও। রাজ্যে সার্বিকভাবে ডিজিটাল সমৃদ্ধির খেতাব হিসেবে এই সম্মান দেওয়া হয় থাকে। এবার সেই তালিকায় নাম উঠে এল পশ্চিমবঙ্গের। পাশাপাশি রাজ্যে-প্রশাসনের কান্ডারি হিসেবে ‘ই-রত্ন’ মুখ্যমন্ত্রীরই প্রাপ্য। এমনটাই উল্লেখ করেছেন সিএসসি কর্তৃপক্ষ তাঁদের চিঠিতে। এই খবরে শাসকদলে উচ্ছাসের হাওয়া ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!