এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নেতাজির সাথে তুলনা করে নয়া নজির গড়লেন তৃণমূলের মেয়র

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নেতাজির সাথে তুলনা করে নয়া নজির গড়লেন তৃণমূলের মেয়র

এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নেতাজির সঙ্গে তুলনা করে রাজনৈতিকমহলে শোরগোল ফেলে দিলেন আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি। ১৯’এর ব্রিগেড সমাবেশের প্রস্তুতির জন্যে এদিন দুর্গাপুরের কুড়ুরিয়াডাঙা ফুটবল ময়দানে সভা করেন তৃণমূল নেতৃত্ব। সেই সভা থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দেশের জনপ্রিয় বাঙালি নেতা তথা স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোসের সঙ্গে জননেত্রীকে তুলনা করে ফেললেন তিনি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই প্রধানমন্ত্রী পদের যোগ্য দাবীদার। এ কথাকে প্রমাণ করতে গিয়ে মঞ্চ থেকেই বাঙালির নেতাজি আবেগকে উস্কে দিলেন। বললেন,নেতাজির প্রতি বাঙালির যেমন আবেগ রয়েছে, তেমনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিও রয়েছে। দেশের আগামী প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখার দাবী করলেন তিনি। আমজনতার কাছে অনুরোধ করলেন তৃণমূলের পাশে থাকার।

সভা থেকেই দলীয় সমর্থকদের সংগঠন মজবুত করার বার্তা দিলেন তিনি। সেইসঙ্গে CPI(M) কর্মীদেরও সঙ্গে নিয়ে চলার কথা বললেন। বক্তব্যে জানালেন,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আর্দশে বিশ্বাস রেখেই আজ তৃণমূল একটি সফল রাজনৈতিক দল হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু এমন অনেকে রয়েছে যারা দূর থেকে জননেত্রীকে মনে প্রাণে শ্রদ্ধা করেন কিন্তু এখনো তৃণমূলের ঝান্ডা তুলে নিতে পারেননি। মঞ্চ থেকে তাঁদেরই দলের শরিক হতে আহ্বান জানালেন তৃণমূলের মেয়র।

অর্থাৎ দলনেত্রীর নির্দেশ মতো লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি পর্বে সাংগঠনিক শক্তিবৃদ্ধির জন্য ভোকাল টনিকের কাজটাই করলেন তিনি। এরপর বঙ্গের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আগামী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করার দাবীতে তুলে ধরলেন তিনি। বললেন,গোটা দেশের মানুষ চাইছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে। তাহলে বাংলার মানুষ পিছিয়ে থাকবে কেন?

তৃণমূল সুপ্রিমোকে প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসানোর দায়িত্ব আমজনতার। সকলের সমবেত প্রয়াসেই এটা সম্ভব। আর একাজে তিনি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলকে সহায়তার জন্যে আহ্বান জানালেন। নিজের মতামত প্রতিষ্ঠার জন্যে বাঙালির নেতাজি আবেগকে ব্যবহার করতে ভুললেন না এই তৃণমূল নেতা। একসময় নেতাজিকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখবার স্বপ্ন ছিল বাঙালির। ঠিক সেই একই স্বপ্ন রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়েও। সেই স্বপ্ন সফল করতে দলীয় কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি CPI(M) এর নেতা-কর্মীদেরও এগিয়ে আসার বার্তা দিলেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দর্শনে বিশ্বাস থাকলেই বাঙালির এই অধরা স্বপ্ন পূরণ হবে বলেই বিশ্বাস আসানসোলের মেয়রের।

উল্লেখ্য, এর আগেও দফায় দফায় বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়,প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা জনতা দল সেকুলার নেতা এইচ ডি দেবেগৌড়া,এমনকি জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধীও বঙ্গের নেত্রীকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন। সম্প্রতি দেশের প্রাক্তন মন্ত্রী ও বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহাও এই ইচ্ছা কথা জানিয়েছিলেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এছাড়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রীসভার সদস্য ব্রাত্য বসুও একবার তাঁর বক্তব্যে নেতাজির সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তুলনা করেছিলেন। সেই একইরকম তুলনা প্রকাশ্যে করে বিতর্ককে উস্কে দিলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। এদিনের এই বক্তব্যের পর রাজনৈতিকমহলে ফের চর্চায় তৃণমূল নেতা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!