এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কথা দিয়েও কথা রাখেনি মোদি সরকার, তাই সাগরদ্বীপের জন্য এবার বড় উপহার দেবেন মুখ্যমন্ত্রীই

কথা দিয়েও কথা রাখেনি মোদি সরকার, তাই সাগরদ্বীপের জন্য এবার বড় উপহার দেবেন মুখ্যমন্ত্রীই

এবার সাগরদ্বীপের মূল ভূখণ্ডে মুড়িগঙ্গার ওপর সেতু তৈরি করা নিয়েও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ঢিলেমিপনার অভিযোগ তুলে বাবুঘাটে গঙ্গাসাগরের তীর্থযাত্রীদের শিবিরের এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সেই মুড়িগঙ্গার ওপর সেতু রাজ্য সরকারই তৈরি করবে বলে ঘোষণা করলেন বঙ্গের প্রশাসনিক প্রধান।

আর এই সেতু তৈরি করতে মুখ্যসচিব মলয় দেকে বিস্তারিত প্রকল্প সম্পর্কে একটি রিপোর্ট জমা করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বেশ কয়েক বছর আগে সাগরদ্বীপের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে মুড়িগঙ্গা নদীর উপর একটি রেল সড়ক সেতু তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্র।

তৎকালীন ইউপিএ সরকার এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিলেও গত 2014 সালে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এসে এই প্রকল্পের কাজটি স্থগিত করে দেয়। তারপরই পূর্ব মেদিনীপুরের তাজপুরে রাজ্য সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে অংশীদারি নিয়ে একটি বন্দর করার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু তাজপুরের বন্দরে 74% অংশীদারিত্ব কেন্দ্রীয় সরকারকে ছেড়ে দেওয়া সত্ত্বেও কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সেখানে কোনো কাজই করা হচ্ছে না বলে এদিন সরব হন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি বাংলা কারও কাছে কোনো ভিক্ষা চায় না বলেও গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে এদিন কটাক্ষ ছুড়ে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, রাজ্যে যখন গেরুয়া ঝড় একটু হলেও বাড়তে শুরু করেছে, ঠিক তখনই উন্নয়ন প্রকল্পে রাজ্যের প্রতি কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের অসহযোগিতার দিকটি তুলে ধরে সাধারণ মানুষের মনে লোকসভা নির্বাচনের আগে বেশি করে সমর্থন পাওয়ার চেষ্টা করলেন তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন সাগরমেলায় রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের ফিরিস্তি দিয়ে উৎসবের দিনে যাতে কেউ অশান্তি বাধাতে না পারে সেই জন্য সকলের উদ্দেশ্যে সতর্কবার্তা জারি করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “কেউ অশান্তি বাধাতে চাইলে পাত্তা দেবেন না। কোনো অসুবিধা হলেই তা পুলিশ প্রশাসনের নজরে আনবেন।”

সব মিলিয়ে এদিন গঙ্গাসাগরের তীর্থযাত্রী শিবিরের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রোষানলে পড়তে দেখা গেল সেই কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকেই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!