এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমনের ক্ষেত্রে কি দিলীপ ঘোষদের জন্য সীমা বেঁধে দিচ্ছেন অমিত শাহ?

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমনের ক্ষেত্রে কি দিলীপ ঘোষদের জন্য সীমা বেঁধে দিচ্ছেন অমিত শাহ?

Priyo Bandhu Media

বার বার তৃনমূলের ও পুলিশের বিরুদ্ধে নানা অশালীন কথা বলে সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছেন তিনি। বলা যায় খানিকটা বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের মতো করে তিনি একটু ধমকানো চমকানো কথা বলে কর্মীদের উৎসাহ দেওয়া শুরু করেছেন কয়েকদিন যাবৎ। অনেকে আবার তাঁকে বিজেপির অনুব্রতও বলে থাকেন তাঁর এই বেফাঁস মন্তব্যের জন্য। তবে জানা যাচ্ছে যে এই ভাবে অশালীন মন্তব্যে নাকি খুব একটা সন্তুষ্ট হচ্ছেন না অমিত শাহরা। এই ভাবে বার বার অশালীন মন্তব্যের জেরে যে বিতর্ক শুরু হচ্ছে তাতে বিজেপির ক্ষতি বই ভালো হচ্ছে না বলেই মত তাঁদের। আর তাই একথা নাকি স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন দিলীপবাবুকে অমিত শাহ এমনটাই এখন বিজেপির সদর দপ্তরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে। চারিদিকে এখন একটাই আলোচনা যে দিল্লিতে ডেকে নিয়ে গিয়ে দিলীপবাবুকে এমনটাই নির্দেশ দিয়েছেন অমিত শাহ।

প্রসঙ্গত, গত 30 জুলাই অসমে এনআরসি প্রয়োগের পর বিধানসভায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে সেই শালীনতার মাত্রা আরও বৃদ্ধি করে খড়গপুরের বিধায়ক তথা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দাবি করেন যে ” এরাজ্যে ক্ষমতায় এলে এনআরসি প্রয়োগ করে বাংলিদেশীদের যেমন ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তাড়ানো হবে ঠিক তেমনি যারা সেই বাংলাদেশীদের সমর্থন করবেন তাঁদেরও ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া হবে ” -আর বাংলার রাজ্য সভাপতির মুখে এহেন ভাষা শুনে তীব্র চাপে পড়ে বিজেপি। কেননা তাদের মতে ভোট ব্যাংকে এর ফলে প্রভাব পড়তে পারে। কেননা তাদের দাবি যে তৃণমূল আসাম নিয়ে অযথা জলঘোলা করছে। বিজেপির নাম মিথ্যা প্রচার করছে আর এই কথা বলে দিলীপবাবু তৃণমূলকে আরো বিজেপির কুৎসা করার সুযোগ করে দিচ্ছেন। আর এদিকে এর পরেই দিলীপ ঘোষকে দিল্লীতে ডেকে পাঠান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তাই বিজেপি অন্দরে জোর গুঞ্জন ছড়িয়েছে যে বুধবার রাতে দলের সদর দপ্তরে দিলীপ ঘোষকে নিজের ভাষা সম্পর্কে সচতন হতে বলেছেন অমিত শাহ। উদাহরন হিসাবে নাকি তিনি নিজের ও নরেন্দ্র মোদীর প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ” আমরাও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধী। কিন্তু তাঁকে কখনও আমরা কুরুচিকর  আক্রমন করি না।” এদিকে অসমে যখন এনআরসি চলছে তখন সেই অসমেরই উত্তরীয় গলায় পড়ে থাকা নিয়েও নাকি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ভর্ৎসনা করেছেন অমিত শাহ। আর তার জন্যই নাকি সেই উত্তরীয় ত্যাগ করেছেন দিলীপবাবু।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এই নিয়ে ধোঁয়াশা ছড়িয়েছিলো রাজনৈতিকমহলেও যে সত্যি কি তাই হয়েছে নাকি সবটাই রটনা। সব জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে এদিন বৈঠক শেষে দিলীপ ঘোষ বলেন “অমিতজী আমায় মেপে কথা বলার পরামর্শ দিয়েছেন। ভবিষ্যতে এ বিষয়ে সতর্ক থাকব।” অন্যদিকে গলায় এই অসমীয় উত্তরীয় ত্যাগ কেন! সে ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে দিলীপ ঘোষ বলেন, “রাজ্য সভাপতি হওয়ার পর থেকেই এটি ব্যাবহার করতেন। কিন্তু এনআরসি বিতর্ক চলায় আর এটি না পড়ে গামছা গলায় দেব।”  রাজনৈতিক মহলের মতে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কথায় মাঝেমধ্যেই অস্বস্তিতে পড়তে হত দলকে। অন্যদিকে দলীয় সভাপতির অশ্লীল মন্তব্য নিয়ে মাঠে নেমে পড়ত শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেসও। তাই এবারে 11 ই আগষ্ট বঙ্গ সফরে আসার আগে সেই দিলীপ ঘোষকে ডেকে কথা বলার ব্যাপারে রূপরেখা বেঁধে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি আমিত শাহ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!