এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মমতা ঘনিষ্ঠকে প্রদেশ সভাপতি পদে বসে চমকে দিলেন রাহুল গান্ধী

মমতা ঘনিষ্ঠকে প্রদেশ সভাপতি পদে বসে চমকে দিলেন রাহুল গান্ধী

কর্ণাটক রাজ্যের জোট সরকারের বাজেট পেশের মাত্র একদিন আগেই বড় চমক দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। কর্ণাটক রাজ্যে কংগ্রেস দলের রাজ্য সভাপতির পদে দলেরই প্রাক্তন রাজ্য কার্যকরী সভাপতি দীনেশ গুণ্ডু রাও’কে মনোনীত করলেন। বিস্ময়ের বিষয় হলো এই যে কংগ্রেস নেতা দীনেশ গুণ্ডু রাও হলো এই মুহূর্তে কংগ্রেস দলীয় সদস্যদের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম বড় সমর্থক। কর্ণাটকের গান্ধীনগর কেন্দ্রের চারবারের বিধায়ক দীনেশ বাবুই প্রথম কংগ্রেস নেতা যিনি ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে জোট তত্ত্বকে সমর্থন করেছিলেন। সম্প্রতি কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনের আগে একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাতকারে দীনেশ গুণ্ডু রাও নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছিলেন, “বর্তমান সময়ে বিজেপি দেশের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকারক। সেই কারণে আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবস্থানকে স্বাগত জানাচ্ছি।”

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি তিনি গেরুয়া শিবির কে অভিযুক্ত করে বলেছিলেন , “বিজেপি দেশটাকে শেষ করে দিচ্ছে, ভারতের সার্বভৌমত্বকে ধ্বংস করে দিচ্ছে।” প্রসঙ্গতঃ রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতিতে দুই জোট শরিক শাসক দল পারস্পরিক মনোমালিন্যে ব্যস্ত। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জেডিএস নেতা কুমারস্বামী নিজেই নাম না করে প্রকাশ্যে জোট শরিক দল কংগ্রেসকে আক্রমন করছে। এই রকম টালমাটাল অবস্থায় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্বভার সামলানো যে খুব একটা সহজ কিছু হবেনা তা মেনে নিলেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মন্ত্রী দীনেশ গুণ্ডু রাও। এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দলকে যোগ্য নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা এবং যোগ্যতা তাঁর আছে জানিয়ে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আর গুণ্ডু রাও-এর পুত্র বললেন, “প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দায়িত্বটাও অনেক বড়। এখন আবার রাজ্যে জোট সরকার চলছে। তবে আমি সব দিক সামাল সঠিকভাবে দিতে পারব।”

Top
error: Content is protected !!