এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > দলের নির্দেশ অমান্য করায় পদ গেল তৃনমূল যুব কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতার

দলের নির্দেশ অমান্য করায় পদ গেল তৃনমূল যুব কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতার

বিগত পঞ্চায়েত ভোটে দলীয় টিকিট না পাওয়ায় রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় নির্দল হয়ে দাড়িয়ে তৃনমূলের বিরুদ্ধেই লড়াই করেছিলেন তৃনমূলের একাংশ। আর এরপরই রাজ্য নেতৃত্ব বার্তা দেয় যে দলকে বিপাকে ফেলে যাঁরা দলেরই বিরুদ্ধে লড়ছে তাঁরা পঞ্চায়েতে জয়ী হয়ে দলে ফিরে আসলেও তাঁদের আর গ্রহন করবে না তৃনমূল। কিন্তু জেলায় জেলায় দলবদলের পালায় সবার জন্য এখন অবারিত দ্বার তৃনমূলে। জেলার নেতৃত্বকে পুরোনো বিবাদ মিটিয়ে নেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছে রাজ্য নেতৃত্ব। তবে সেই বিবাদ তো মিটলই না, উল্টে দলীয় নির্দেশ অমান্য করায় তৃনমূল যুব কংগ্রেসের কুমারগ্রাম ব্লক সভাপতি থেকে সরিয়ে দেওয়া হল সঞ্জীবকুমার নার্জিনারিকে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

গতকাল 21 শে জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভা হিসেবে বারবিশার একটি হলঘরে সভা ডাকেন আলিপুরদুয়ার জেলার তৃনমূল যুব সভাপতি সমর ভট্টাচার্য। আর সেখানেই কুমারগ্রাম ব্লক যুব সভাপতিকে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে সমর ভট্টাচার্য বলেন, “সঞ্জীবকূমার নার্জিনারি যুব সংগঠনের ব্লক সভাপতি থেকেও পঞ্চায়েতের দলের বিরুদ্ধে নির্দল হয়ে দাড়িয়েছিল। তাই দলবিরোধী কাজের জন্য সংগঠনের ব্লক সভাপতি থেকে সরিয়ে দেওয়া হল তাঁকে।” পাশাপাশি জেলা যুব তৃনমূল সভাপতি সমর ভট্টাচার্য আরও বলেন, “বারবার বলা ও শোকজ করা সত্তেও নিজের স্বার্থরক্ষার জন্য উনি নির্দলে দাঁড়িয়েছেন। দল এগুলো বরদাস্ত করবে না।” জানা গেছে, এদিন কুমারগ্রাম ব্লকের যুব কমিটিও ভেঙে দেন জেলা তৃনমূলের যুব সভাপতি। পাশাপাশি সঞ্জীবকুমার নার্জিনারির জায়গায় সাংগঠনিক কাজকর্ম দেখার জন্য ব্লক পর্যবেক্ষক শিবু রায়কে দ্বায়িত্ব দেন তিনি। সব মিলায়ে মুখ্যমন্ত্রীর সফরকালে দলীয় স্তরে তৃনমূল যুবর ব্লক সভাপতিকে সরিয়ে দেওয়া ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য রাজনৈতিক মহলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!