এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হলেন ‘হীরক রাজার বোন’ সৌজন্যে বিজেপি

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হলেন ‘হীরক রাজার বোন’ সৌজন্যে বিজেপি

রবিবার নোয়াপাড়ায় বিজেপির গ্রামীণ মণ্ডলের এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করলো গেরুয়া শিবির। সেখানেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা নাম না করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে বিদ্রুপ করলেন। এদিন অনুষ্ঠান সভা থেকে রাহুল বাবু বললেন, ”বাংলার মুখ্যমন্ত্রী যেন হীরক রাজার বোন। হীরক রাজা যেমন প্রজাদের রক্ত চুষতেন তেমনি মুখ্যমন্ত্রী বাংলার কৃষকজদের রক্ত চুষছেন।” একই সাথে তিনি জানালেন পুরুলিয়ায় বিজেপির দলীয় কর্মীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় সুবিচারের আশায় হাইকোর্টেের দারস্থ হচ্ছে বিজেপি দল। তাঁর মতে ঐ ঘটনায় অভিযুক্ত কোনো মানুষই রেহাই পাবেনা তা তিনি যে পেশার মানুষই হন। এরপরে তিনি বললেন , রাহুল সিনহা বললেন, ”শনিবার আমি অমর পালের বাড়ি গিয়েছিলাম। তাঁর গান নিয়ে কথা হচ্ছিল। তখন আমার মনে হল তাঁর সেই বিখ্যাত গান যা বর্তমান সময়ে প্রাসঙ্গিক।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

‘আমি কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়!’ মনে হল আমাদের রাজ্যে হীরক রাজার কোন বোন বসে আছে যে হীরক রাজার মতোই বাংলার কৃষকের রক্তকে চুষছে!” সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সাথে কথা বলার সময়ে এই বিজেপি নেতা আবার বললেন, ”অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ভেবেছিলেন উনি একাই পুরুলিয়া জিতিয়ে নিয়ে আসবেন। কিন্তু প্রথম দায়িত্বেই এত বড় বিপর্যয়, এত বড় ধাক্কা! তাই এখন অন্যায় ভাবে,অসংবিধানিক ভাবে পুরুলিয়া দখলের চেষ্টা করছে। সাহায্য নিচ্ছে পুলিশ মস্তানদের। কিন্তু আমার মনে হয় সেখানকার মানুষ জেনে গিয়েছেন কারা কী! আমরা সিবিআই তদন্ত চাই।” দেশের সীমান্তে নানা বিচ্ছিন্ন ঘটনায় সেনা জও্যান্দের মৃত্যুর ঘটনার প্রসঙ্গে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বললেন, ”ভারতীয় সেনা জওয়ানরা তো কংগ্রেস আমলে বেশি মারা গিয়েছেন। সাধারণ মানুষও কংগ্রেস আমলেই বলি হয়েছেন। সেনাদের প্রতি আমরা যা শ্রদ্ধা দেখিয়েছি কংগ্রেস কোনওদিন দেখায়নি। গোটা দেশবাসী সৈনিকদের সঙ্গে রয়েছেন। সরকারও সেনাদের পাশে রয়েছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!