এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > পিতা-পুত্রের হাত ধরেই মালদহের দুই আসনেই নিজেদের গড় ধরে রাখতে জোড় কংগ্রেস শিবিরের

পিতা-পুত্রের হাত ধরেই মালদহের দুই আসনেই নিজেদের গড় ধরে রাখতে জোড় কংগ্রেস শিবিরের

একদা মালদহ কংগ্রেসের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত হলেও কিছুদিন আগেই এইখানে কংগ্রেসের মূল চাবিকাঠি গনি পরিবারের অন্যতম সদস্যা মৌসম বেনজির নূর তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্র তৃণমূলের প্রার্থী। ফলে এবারে উত্তর মালদহে কংগ্রেসের তরফে প্রার্থী হয়েছেন গনি পরিবারের আবু হাসেম খান চৌধুরীর ছেলে ইশা খান চৌধুরী এবং দক্ষিণ মালদহে প্রার্থী হয়েছেন সেই আবু হাসেম খান চৌধুরী।

তাই পিতা এবং পুত্র দুজনেই প্রার্থী হওয়ায় কে কার প্রচারে সময় দিতে পারবেন তা নিয়ে কিছুটা হলেও বিড়ম্বনায় পড়েছেন তারা বলে খবর। প্রসঙ্গত, গত 2011 সালের বিধানসভা নির্বাচনে প্রথমবারের জন্য মালদহের বৈষ্ণবনগর বিধানসভা থেকে কংগ্রেসের বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হন গনি পরিবারের সদস্য ইশা খান চৌধুরী।

আর এপর বিগত 2016 র বিধানসভা নির্বাচনে বৈষ্ণবনগরের বদলে সুজাপুরে তারই জেঠু আবু নাসের খান চৌধুরী তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাঁড়ালে সেই ঈশা খান চৌধুরী জেঠুর বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে কংগ্রেসের টিকিটে জিতে আসেন। আর দক্ষিণ মালদহের এই দুই বিধানসভা কেন্দ্র থেকে পরপর দুটি বিধানসভা নির্বাচনে জিতলে এই লোকসভা কেন্দ্রটি তিনি হাতের তালুর মতোই চেনেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

স্থানীয় সূত্রের খবর, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই দক্ষিণ মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের বিদায়ী কংগ্রেস সাংসদ ও বর্তমানে এখানকার কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী এখানে ঠিকমত সময় না দেওয়া এই এলাকার গোটা দিকটি দেখভাল করতেন সেই আবু হাশেম খান চৌধুরীর ছেলে ইশা খান চৌধুরী। তবে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাবার ভোট বৈতরণী পার করা অপেক্ষা নিজের উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রে তৃনমূলের টিকিটে দাড়ানো বোন মৌসমের বিরুদ্ধে লড়ে নিজের জেতাই ঈশার কাছে মূল চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

তাই সেক্ষেত্রে নিজের বৈতরণী পার করাতে ছেলে ইশা খান চৌধুরীকে কতটা পাবেন দক্ষিণ মালদহের কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্ন। এদিন এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ মালদহের কংগ্রেস প্রার্থী সেই আবু হাসেম খান চৌধুরী ওরফে ডালু বলেন, “আমি অতীতে তিনবার জিতেছি। আবার জয়ের জন্য লড়াই করছি। ঈশা থাকলে ভাল হত। তবে এবার ও নিজের কেন্দ্র নিয়ে ব্যস্ত থাকবে। তেমন অসুবিধা হবে না। মালদহের জমি গনিখানের মাটি। এখানে তার নামেই মানুষ কংগ্রেসকে ভোট দেবে।”

অন্যদিকে কিছুটা হলেও সমস্যা হবে একথা স্বীকার করে নিয়েছেন সেই আবু হাসেম খান চৌধুরীর ছেলে তথা উত্তর মালদহ লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী ইশা খান চৌধুরী। এদিন তিনি বলেন, “কিছুটা হলেও সমস্যা হবে। প্রচারে বাবাকে খুব এটা ডাকবো না। আমি তাকে দক্ষিণ মালদাতেই বেশি সময় দিতে বলেছি।” সব মিলিয়ে এবার মালদহের দুই কেন্দ্রে গনি পরিবারের পিতা এবং পুত্র দাড়ানোয় শেষ পর্যন্ত তারা নিজেদের গড় রক্ষা করতে পারেন কিনা এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!