এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদায় কংগ্রেস-বামফ্রন্ট জোট নিয়ে তীব্র কটাক্ষ মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথের

মালদায় কংগ্রেস-বামফ্রন্ট জোট নিয়ে তীব্র কটাক্ষ মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথের

মালদহ জেলায় নির্বাচনী প্রচারে যোগদান করে এক বেসরকারী হোটেল থেকে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে কংগ্রেস সিপিএম জোট প্রসঙ্গে কংগ্রেসকে তোপ দাগলেন  উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। এদিন তিনি বললেন, ”ইন্দ্রিরা গান্ধি-রাজিব গান্ধির কংগ্রেস কখনও বামেদের সঙ্গে হাত মেলায়নি, জোট করেনি। এমনকি গণিখান চৌধুরী যখন রাজ্য সভাপতি ছিলেন তখন সিপিএমকে-ও বামপন্থীদের বঙ্গপোসাগরে নিক্ষেপের কথা বলেছিল।” এছাড়াও তিনি বললেন, ”সেই কংগ্রেসের নেতানেত্রী যারা গণিখানের আত্মীয় তারা এখন বলছে সিপিএমের সঙ্গে জোট করেছি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

যে হাত চিহ্নে ভোট দেওয়ার অপরাধে কংগ্রেস কর্মীর হাত কেটে নিয়েছিল, মুখে কই মাছ ঢুকিয়ে দিয়েছিল, ৫০ হাজারের বেশী কংগ্রেস কর্মীকে খুন করেছিল, সেই সিপিএমের সঙ্গে সেই কংগ্রেস হাত মেলাচ্ছে। মানুষের নীতি আর্দশের কথা ভাবছে না।” উল্লেখ্য ২০১৬ সালে যে ভোটারদের ভোটে অসম বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতায় আসে বিজেপি। এখন তারা দাবি করছে সেই ভোটার তালিকাত ত্রুটি রয়েছে।  এমনকি ৬৯ লক্ষ হিন্দি এবং বাংলা ভাষী মানুষের নাম নির্বাচনী তালিকা থেকে খারিজ করার কুশলী চেষ্টা করছে। এদিন তিনি দাবি করলেন এইসব মানুষদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে এনে ডিটেনশন ক্যাম্পে রেখে আটক করে রাখা হচ্ছে। বিজেপি দলীয় কর্মীরা গলা সাধছেন ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ এই শ্লোগান দিয়ে। যেখানে ২১-২২ বছরের মেয়েদের আটকে রেখে শারিরীক নিগ্রহ করা হচ্ছে। প্রতিবেশী রাজ্যের এই সব ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বললেন, ” ”বাংলাভাষী ও হিন্দিভাষী মুসলিম ছাত্র-ছাত্রীদের নাম স্কুলের খাতা থেকে কেটে দেওয়া হচ্ছে। এই ধরনের ঘটনা বিজেপি শাসিত রাজ্যে হয়। আমাদের রাজ্যে হয়না।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!