এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মাজেরহাটের ব্রিজের বরাত পেল কে? বাজেটই বা কত? জানুন বিস্তারিত

মাজেরহাটের ব্রিজের বরাত পেল কে? বাজেটই বা কত? জানুন বিস্তারিত

গত 4 সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় শহরে হঠাৎই ভেঙে পড়ে মাঝেরহাট ব্রিজ। আর এই কাণ্ডে মৃত্যু হয় তিনজনের। যা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে প্রবল বিষোদগার করতে দেখা যায় বিরোধী দলগুলিকে। পাশাপাশি এই ব্রিজ ভেঙ্গে যাওয়ার ফলে বেহালা ঠাকুরপুকুরের সঙ্গে কলকাতার দীর্ঘদিনের যে যোগাযোগ তার সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায়।

ফলে দক্ষিণ কলকাতা এবং দক্ষিণ শহরতলির মানুষকে প্রতিনিয়ত তীব্র যানজটের শিকার হতে হয়। কিন্তু পুজোর সময় যাতে এই যানজট থেকে মুক্তি পান সাধারন মানুষ সেই কারণে দুর্গা পুজোর আগেই মাঝেরহাট লেভেল ক্রসিং ও দুটি বেইলি ব্রিজ তৈরি করে সরকার।

এমনকি এই পুরনো ব্রিজ ভেঙে সেখানে যে নতুন ব্রিজ গড়া হবে সেই ব্যাপারে রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দেকে একটি পরিকল্পনা করার দায়িত্ব দেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, এই ব্রিজ দুর্ঘটনায় তদন্তের জন্য পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট পেশেরও দায়িত্ব পরে সেই মলয় দের ওপর।

অন্যদিকে এই ব্রিজ গঠনের জন্য টেন্ডার ডাকা হলে লক্ষ্মী পুজোর পর গত 26 অক্টোবর শুক্রবার অফিস খুললে দেখা যায় যে, সেখানে এই টেন্ডারের জন্য নটি আবেদন জমা পড়েছে। সূত্রের খবর, এর মধ্যে টেকনিক্যাল কারণে একটি আবেদন বাতিল হয়। তবে বাকি আটটার মধ্যে সবথেকে কম দর থাকার কারণে এই মাঝেরহাট ব্রিজ গঠনের টেন্ডার দেওয়া হয় পাঞ্জাবের এস পি সিংলা কোম্পানিকে।

জানা গেছে, মোট দুশো কোটি টাকার প্রকল্পের বরাত পেয়েছে এই সংস্থা। ইপিসি পদ্ধতিতে তৈরি এই ব্রিজের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকবেন মূলত সেই সংশ্লিষ্ট নির্মাণকারী সংস্থাই।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

দপ্তর সূত্রের খবর, অর্থ দপ্তরের অনুমোদন নিয়েই এই বরাত পাওয়া সংস্থাকে ওয়াক অর্ডার দেয়া হবে। আর কালীপুজোর পরই শুরু করা হবে এই মাঝেরহাট ব্রিজ তৈরির কাজ। একাংশের অনুমান, আগামী বছরের 15 সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ফের নতুন রূপে দেখা দেবে এই মাঝেরহাট ব্রিজ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!