এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মহেশতলা উপনির্বাচন মিটতেই শাসকদলের নেতৃত্ত্বে বড়সড় পরিবর্তনের জল্পনা তুঙ্গে

মহেশতলা উপনির্বাচন মিটতেই শাসকদলের নেতৃত্ত্বে বড়সড় পরিবর্তনের জল্পনা তুঙ্গে

সমস্ত রকম বাধা বিপত্তির মোকাবিলা করে মহেশতলা উপনির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস  নজরকাড়া সাফল্য পেলো। এই নির্বাচনে বিজেপির ফলাফলে কোনো উল্লেখ যোগ্য ঘটনা নেই। রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতোই গেরুয়া শিবির গতানুগতিক ভোট বৃদ্ধির সাফল্যেই আবদ্ধ । অন্যদিকে জয়ের ব্যবধান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের। এদিনে মহেশতলায় দলের সাফল্যে লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে ঐ জেলার নেতৃত্বের যে পরিবর্তন হতে চলেছে তার আভাস দিলো দলের রাজ্য নেতৃত্ব। এই নির্বাচনের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী দুলাল দাস রেকর্ড ভোটে জয়লাভের পরে  দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা নেতৃত্ব উল্লেখ্যযোগ্য পরিবর্তন ঘটতে চলেছে ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জানা যাচ্ছে এই জেলায় কলকাতা পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যেয়র দায়িত্ব বৃদ্ধি পাবে একই ভাবে দায়িত্ব কমানো হবে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। উল্লেখ্য মেয়রের সাংসারিক বিবাদের জের এসে পড়েছে দলীয় কাজকর্মে । সেই কারণেই তাদের সচেতন করতে রত্নাদেবীর কাজের দায়িত্ব বৃদ্ধি এবং মেয়রের ক্ষমতার হ্রাস প্রাপ্তি বলে মনে করা হচ্ছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকেও মেয়রকে অপসারন করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। মহেশতলা নির্বাচনে দলীয় কর্মীদের ভূমিকা বিষয়ে পর্যালোচনা করতে গিয়ে দেখা যায় দলের জেলা সভাপতি হয়েও  শোভন চট্টোপাধ্যায়কে একটি কেন্দ্রে উপনির্বাচনে কোনো ভূমিকাই পালন করেননি। বরং ঐ কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী দুলাল দাস অর্থাৎ মেয়র পত্নী রত্না দেবীর বাবা নিজেই মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিররুদ্ধে অন্তর্ঘাতের অভিযোগ এনেছেন। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সভাপতির পদে সম্ভাব্য নাম সাংসদ শুভাশিস চক্রবর্তী বলে রাজনৈতিক মহলের সূত্রে জানা যাচ্ছে।

 

আপনার মতামত জানান -
Top