এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রবল জটিলতা মহারাষ্ট্রে, নতুন করে বাড়ল সমস্যা, জানুন বিস্তারিত

প্রবল জটিলতা মহারাষ্ট্রে, নতুন করে বাড়ল সমস্যা, জানুন বিস্তারিত

 

প্রথম দিকে কথা ছিল মহারাষ্ট্রে বিজেপি-শিবসেনা জোট সরকার গড়বে। কিন্তু শিবসেনার তরফে সরকার গড়ার জন্য এবং বিজেপিকে সমর্থন করার জন্য ফিফটি-ফিফটি ফর্মুলা দেওয়ায় বিজেপি তাতে রাজি হয়নি। যার পরে যত দিন গিয়েছে, ততই বেড়েছে জটিলতা।

তবে সাম্প্রতিককালে বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহ জল্পনা বাড়িয়ে দিয়েছিল যে, শিবসেনা, এনসিপি এবং কংগ্রেস জোট হয়ত বা মহারাষ্ট্রে সরকার গড়তে চলেছে। তবে এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ারের কথায় এবার সেই সম্ভাবনাও ভেস্তে যেতে শুরু করল। সূত্রের খবর, সোমবার এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ারকে প্রশ্ন করা হয়, আপনারা কি শিবসেনার সঙ্গে জোট করে মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ছেন! যা শুনে কার্যত অবাক হয়ে শরদ পাওয়ার বলেন, “তাই নাকি?”

যে ঘটনা ব্যাপক জল্পনার সৃষ্টি করেছিল। আর এরই মাঝে রাজ্যসভার 250 তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুখ থেকে এনসিপির প্রশংসা শোনা যাওয়ায় সেই জল্পনা আরও তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠতে শুরু করে। মহারাষ্ট্র নিয়ে কংগ্রেসের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে আলোচনার পর নানা মহল সেই দিকে তাকিয়ে ছিল। তবে এই বৈঠকের পর শরদ পাওয়ার বলেন, “মহারাষ্ট্রে সরকার গড়া নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। সেখানে সরকার গড়তে আরও সময় লাগবে।” এদিকে শিবসেনার মন্তব্যেও এখন জল্পনা বৃদ্ধি হতে শুরু করেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

 

 

জানা গেছে, মঙ্গলবার শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, “পাওয়ার ও আমাদের জোট নিয়ে আপনাদের চিন্তিত হতে হবে না। খুব শীঘ্রই ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই শিবসেনা নেতৃত্বাধীন জোট মহারাষ্ট্রে সরকার গড়বে।” তবে অনেকে আবার দাবি করতে শুরু করেছেন, নিজেদের শর্ত অটুট রেখে বিজেপির সঙ্গে জোট করতে ফের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে শিবসেনা। যেখানে প্রথম থেকেই শিবসেনা দাবি করে আসছে যে, মুখ্যমন্ত্রী পদ তাদেরকেই দিতে হবে।

পাশাপাশি ফিফটি-ফিফটি মন্ত্রিত্বের ফর্মুলাও জানিয়ে দিয়েছে তারা। যা নিয়ে প্রথম থেকেই বিজেপির সাথে শিবসেনার দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। তবে কংগ্রেসের সঙ্গে এবং এনসিপির সঙ্গে জোট করে সরকার গড়লেও তাদের যে এই শর্ত অটুট থাকবে, তা জানিয়ে দিয়েছে শিবসেনা। সেইমত মহারাষ্ট্রে শিবসেনা, কংগ্রেস এবং এনসিপি’র আলোচনা পর্ব ভালোর দিকে এগুলেও এবার শরদ পাওয়ারের মন্তব্য তীব্র জল্পনা বাড়িয়ে দিল বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যদি এই তিন রাজনৈতিক দলের জোটপর্ব ঠিকই থাকবে, তাহলে এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার কেন সেই জোটের কথা শুনে “তাই নাকি!” বলে প্রশ্নচিহ্ন ছুড়ে দিলেন! তাহলে কি আদতে এই জোট হচ্ছে না! এখন এইসব প্রশ্নই ঘোরাফেরা করছে রাজনৈতিক মহলে। সব মিলিয়ে শরদ পাওয়ারের মন্তব্য মহারাষ্ট্রে সরকার গড়তে কোনো প্রভাব ফেলে কিনা, এখন সেদিকেই তাকিয়ে গোটা রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!