এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মহারাষ্ট্রের বরফ যে এত সহজে গলবে না, বিজেপির উপর চাপ বাড়িয়ে প্রতি পদে বুঝিয়ে দিচ্ছে শিবসেনা

মহারাষ্ট্রের বরফ যে এত সহজে গলবে না, বিজেপির উপর চাপ বাড়িয়ে প্রতি পদে বুঝিয়ে দিচ্ছে শিবসেনা


 

লোকসভা নির্বাচনে সারাদেশে বিজেপি ঝড় প্রত্যক্ষ করা গেলেও সদ্য সমাপ্ত হয়েছে হরিয়ানা এবং মহারাষ্ট্রের বিধানসভা নির্বাচন। যেখানে বিজেপি কিছুটা হলেও মুখ থুবরে পড়েছে বলে দাবি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। দেখা গেছে, 2014 সালে বিজেপি মহারাষ্ট্র 122 টা আসন পেলেও এবার তারা পেয়েছে মোট 105 টি আসন।

পাশাপাশি তাদের জোটসঙ্গী শিবসেনার আসন সংখ্যা কিছুটা কমলেও সরকার গড়তে হলে শিবসেনাকে সাথে নিয়েই যে বিজেপিকে সরকার গড়তে হবে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত ছিল প্রত্যেকেই। তবে প্রথম থেকেই বিজেপির দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে চাপ সৃষ্টি করতে ছাড়ছিল না শিবসেনা।

জানা গেছে, প্রথম থেকেই মহারাষ্ট্রের ক্ষমতা যাতে আধা ভাগ করে নেওয়া যায়, তার জন্য বিজেপির প্রতি দাবি জানিয়ে আসছে উদ্ধব ঠাকরের দল।ইতিমধ্যেই শনিবার সকালে 2 নির্দল বিধায়ক শিবসেনাকে তাদের সমর্থন দিয়েছেন। পাশাপাশি ছোট আঞ্চলিক দল হিসেবে পরিচিত প্রহার জনশক্তি পার্টির 2 বিধায়কও শিবসেনার প্রতি তাদের সমর্থনের কথা জানিয়ে দিয়েছেন।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

শুধু তাই নয়, অচলপুরের বিধায়ক বাচ্চু কাডু এবং এবং মেলঘাটের বিধায়ক রাজকুমার প্যাটেল শিবসেনার প্রতি সমর্থন আছেন বলে সেই শিব সেনার শক্তিকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন। আর বিভিন্ন ছোট ছোট আঞ্চলিক দলের সমর্থনে প্রবল শক্তিতে বলিয়ান হয়ে এখন বিজেপিকে দেওয়া শর্ততে আরও চাপ বাড়াচ্ছে শিবসেনা।

এদিন এই প্রসঙ্গে শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, “ক্ষমতার রিমোট কন্ট্রোল এখন সেনার হাতে। ভোটের ফল দেখার পর শিবসেনা যে বিজেপির পেছনে থাকবে, সেই স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ হয়ে গিয়েছে।” অন্যদিকে তারা বিজেপির সঙ্গে 2014 তে সমঝোতা করলেও এবার তাদের ভাগ পাওয়ার সময় বলে দাবি করতে দেখা গেছে শিবসেনার এক নেতাকে

ফলে শিবসেনার পক্ষ থেকে বিজেপির প্রতি লাগাতার এই চাপ দেওয়ায় এখন বিজেপি সেই চাপের কাছে নতিস্বীকার করে কিনা, সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!