এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > গান শুনিয়েই বাংলা থেকে বিজেপিকে উধাও করতে চান মদন মিত্র

গান শুনিয়েই বাংলা থেকে বিজেপিকে উধাও করতে চান মদন মিত্র

একসময়ে রাজ্যের সকল তৃণমূল কংগ্রেসের দাপুটে নেতা, রাজ্যের দাপুটে মন্ত্রী। কিন্তু তারপরেই একের পর এক আর্থিক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছে, যেতে হয়েছে জেলে। ফলে প্রথমে গেছে মন্ত্রীত্ত্ব, পরে হারিয়েছেন বিধায়ক পদ। আর তারপরেই দলে ক্রমশ কোনঠাসা, দলের ২১ শে জুলাইয়ের মূলমঞ্চে ওঠার সুযোগ জোটেনি, ফুটপাথে টুলে বসে দেখতে হয়েছে সেই অনুষ্ঠান। এমনকি একের পর এক উপনির্বাচন পেরিয়ে গেলেও ডাক পাননি প্রচারে। তিনি মদন মিত্র, কামারহাটি প্রাক্তন বিধায়ক ও রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী। দলে রীতিমত কোনঠাসা হয়ে একসময় নিজেকে ‘লাস্টবয়’ বলেও অভিহিত করেছিলেন, কিন্তু তার সাথেই জানিয়েছিলেন কোনো পরিস্থিতিতেই দল ছাড়বেন না।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তারপরেই সমীকরণটা বদলাতে শুরু করল মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতেই। প্রথমে তপসিয়ায় তৃণমূল ভবনে প্রাত্যহিক কাজ, আর এবারে একেবারে সরাসরি পঞ্চায়েতের প্রচারের দায়িত্বে। আর সেই নির্বাচনী প্রচারে উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারে গিয়ে দলীয় কর্মীদের জানিয়ে দিলেন গান শুনিয়েই বিজেপিকে রাজ্য থেকে উধাও করে দেবার মন্ত্র। তিনি বলেন, বিজেপি হচ্ছে কালনাগিনী, অন্ধকারের খেলা খেলতে ওরা সিদ্ধহস্ত। ঠিক যেভাবে বেহুলা-লখীন্দরের ঘরে ঢুকে পড়েছিল কালনাগিনী, একইভাবে বিজেপি বাংলায় ঢুকে পড়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু এই ইটাহারের মাটিতে বিজেপিকে চাষ করতে দেবেন না, বিজেপির মতো অপশক্তিকে আটকাতেই হবে, বিজেপিকে রুখতেই হবে। কিন্তু কোন পথে রোখা যাবে বিজেপিকে? বিজেপি যখন এখানে মিটিং-মিছিল করতে আসবে, তখন তাদের গান শুনিয়ে দেবেন। তাদের শোনাবেন, ‘দেখো দিওয়ানো তুম ইয়ে কাম না করো, রাম কা নাম বদনাম না করো’- এই গানটি। তারপরই দেখবেন বিজেপি উধাও হয়ে গিয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!