এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > মদন-গড়ে দুই ক্লাবের মারামারিতে রণক্ষেত্র এলাকা, ফাটল মাথা – চলল গুলি!

মদন-গড়ে দুই ক্লাবের মারামারিতে রণক্ষেত্র এলাকা, ফাটল মাথা – চলল গুলি!

এবার ক্লাবে ক্লাবে গন্ডগোলে চরম উত্তাপ ছড়াল প্রাক্তন পরিবহনমন্ত্রী তথা বর্তমান তৃনমূল নেতা মদন মিত্রের খাসতালুকে। জানা গেছে, কামারহাটি পুরসভার 29 নং ওয়ার্ডে একটি 4 নং রেলগেট রয়েছে।সেই রেলগেট সংলগ্ন একটি ক্লাবের সম্পাদক পদ থেকে গত 1 বছর আগে কাউন্সিলর রুপালী সরকারের অনুগামী অভয় তেওয়ারীকে সরিয়ে নতুন সম্পাদক করা হয় সন্তোষ সিংকে।

আর এরপর থেকেই অভয় তেওয়ারী অদূরেই অবস্থিত আরও একটি ক্লাব, যার সভাপতি কাউন্সিলর রুপালী সরকার, সেই ক্লাবের তদিরকি করতেন। এখানেই অনেকের অভিযোগ যে, নতুন ক্লাব তৈরি করে বহিরাগতদের নিয়ে দাপাদাপি করাতে এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

সূত্রের খবর, গত রবিবার ক্লাবে একটি আলোচনা চলার সময় এলাকার এক বাসিন্দা ক্লাবের এক সদস্যের কাছে অভিযোগ জানাতে এলে অভয় তেওয়ারী সেই অভিযোগকারীকে মারতে যান। আর তখনই সন্তোষ সিং বাধা দেয় অভয়কে। সামান্য হাতাহাতি হলেও তা মিটে যাওয়ায় এই অভয় তেওয়ারী এলাকা থেকে চলে আসার পর ফের দল বেঁধে সেই ক্লাবে হামলা চালানো হয় বলে আভিযোগ। এমনকী এই ঘটনায় মেরে মাথাও ফাটিয়ে দেওয়া হয় সন্তোষ সিংয়ের।

অন্যদিকে অপরপক্ষের অভিযোগ, এলাকা দিয়ে বাইক নিয়ে যাওয়ার সময় অভয় তেওয়ারীকে গুলি করে সন্তোষ সিংয়ের অনুগামীরা। এই ঘটনায় গুলি না লাগলেও বাইক থেকে পড়ে যান এই কাউন্সিলর অনুগামী। তবে অভয় তেওয়ারীর বিরুদ্ধে অন্য ক্লাবে হামলা চালানোর অভিযোগ প্রসঙ্গে  এলাকার কাউন্সিলর রুপালি সরকার বলেন, “অভয় ক্লাব সম্পাদক থাকার সময় আমি মদন মিত্রকে দিয়ে 2 লক্ষ টাকা ওই ক্লাবকে পাইয়ে দিলেও টাকা পাওয়ার পরই কিছু বহিরাগত ওই ক্লাব দখল করে অভয়কে সরিয়ে দিল। এদিনের ক্লাব ভাঙচুরের অভিযোগ ভিত্তিহীন। ওরা নিজেরাই ভাঙচুর করে আমাদের নামে বদনাম করছে।” জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনার প্রতিবাদে একটি মিছিলও করেন কাউন্সিলর ও তাঁর অনুগামীরা। পুলিশ সূত্রের খবর, এই ঘটনায় দুপক্ষই বেলঘরিয়া থানায় একটি আভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্তও শুরু করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!