এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > গোটা লোকসভা ভোটে বিজেপিকে কি ভাবে আপ্যায়ন করবেন তা বাতলে দিলেন অভিষেক, হুমকির অভিযোগ বিরোধীদের

গোটা লোকসভা ভোটে বিজেপিকে কি ভাবে আপ্যায়ন করবেন তা বাতলে দিলেন অভিষেক, হুমকির অভিযোগ বিরোধীদের

প্রথম দফার ভোট শেষ হয়েছে। আর এরপরের পর্যায়গুলো যতই এগিয়ে আসছে ততই জোরতার দিয়ে চলছে প্রচার পর্ব। পিছিয়ে নেই কোনো পক্ষই।

এদিন বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরার সমর্থনে প্রচারে আসেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই এক জনসভায় তিনি গোটা লোকসভা ভোটে বিজেপিকে কি ভাবে আপ্যায়ন করবেন তা বাতলে দেন।

এদিন দক্ষিণ 24 পরগনার বিষ্ণুপুরে একটি প্রচার সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সোনালি গুহ, সওকত মোল্লা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সভাধিপতি সামিমা শেখ সহ তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব। আর সেখান থেকেই বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য এই যে, পাঁচ বছরের বিভিন্ন সময়ে কখনও জিএসটি, কখনই নোট বাতিলের নামে অত্যাচার চালানো হয়েছে। আর এই নিয়েই সভায় আসা কর্মী সমর্থকদের কাছ তিনি প্রশ্ন করেন যে , তাঁরা কি জিএসটির কোনো কিছু সুবিধা পেয়েছেন, কালো টাকা কি ধ্বংস হয়েছে?

আর এর পরেই তিনি বলেন যে, প্রথম দফায় মাজা ভেঙেছি, দ্বিতীয় দফায় হাত ভাঙব, তৃতীয় দফায় পা ভাঙব, চতুর্থ দফায় কোমর আর পঞ্চম দফায় মুখ ভাঙবেন। মানুষ গণতান্ত্রিকভাবে জবাব দেবেন বলেও জানান অভিষেক। শুধু এই নয় এদিন মোদিকেও আক্রমণ করে বলেন যে, ২৩ মে বাংলার মানুষ এমন মারবে যে, উঠে দাঁড়াতে পারবেন না।

হাতের মুঠোয় আরও সহজে প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে যোগ দিন –

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

আর এই নিয়েই বিজেপি অভিযোগ করেছে যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাদের হুমকি দিচ্ছেন। ব্যোপি নেতাদের দাবি যে প্রথম দফায় বিজেপির মাজা ভাঙেনি ভেঙেছে তৃণমূলের আর তাই এই সব বলছেন। অভিষেক জেনে গেছেন ২৩ সে মে-এর পর আর তৃণমূল দলটাই থাকবে না আর তাই এইভাবে সভায় বক্তৃতা ও দেওয়া হবে না তাই এই সব বলে হুমকি দিচ্ছেন। যাতে সাধারণ মানুষ ভয় পেয়ে বিজেপিকে আর না সমর্থন করেন। কিন্তু এমনটা আর হবে না মানুষ চুপ চাপ এবার পদ্ম ফুলেই ছাপ দেবেন।

যদিও এই হুমকির অভিযোগ নিয়ে তৃণমূল বা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে কোনো পতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। আর এদিকে এই নিয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানানো হবে কিনা সে নিয়েও কোনো পতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে ফের যে সভা মঞ্চে বিজেপি তৃণমূলের বাক যুদ্ধ শুরু হলো তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Top
error: Content is protected !!