এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য >   এবার নিজের তথ্য নিজেই অনলাইনে আপলোড করতে হবে-লোকসভার জন্য রাজ্যে ভোটকর্মীদের তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়ে গেল

  এবার নিজের তথ্য নিজেই অনলাইনে আপলোড করতে হবে-লোকসভার জন্য রাজ্যে ভোটকর্মীদের তথ্য সংগ্রহ শুরু হয়ে গেল

লোকসভা ভোটের দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন। কিন্তু ভোটকর্মীদের যাতে ঠিক মত প্রস্তুত করে রাখা যায় সেই ব্যাপারে এখন থেকেই নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করে দিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের কাজে যুক্ত ভোট কর্মীদের বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করত কমিশন। আর যার ফলে তৈরি হত নানা বিভ্রান্তি।

কিন্তু এবারে সেই ভোট কর্মীদের নিজেদের তথ্য নিজেদেরই ওয়েব সাইটে আপলোড করে দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই ওড়িশা থেকে এই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় লোকসভা ভোটের জন্য ইভিএম এসে পৌঁছে গিয়েছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের সেই ইভিএমগুলো দেখানোও হয়েছে। আর নির্বাচনের আগে এই ভোট কর্মীদের ঠিক কোথায় কোন কেন্দ্রে পাঠানো হবে তা ঠিক করে নির্বাচন কমিশন।

কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে, বিভিন্ন সময় সেই ভোট কর্মীদের নামের ঠিকানা এবং নাম ভুল থাকায় তাদের ডিউটি দেওয়া সম্ভব হয় না। ফলে তৈরি হয় নানা বিভ্রান্তি। আর তাই এবার সেই সমস্ত বিভ্রান্তি কাটাতে নির্বাচন কমিশনের তরফে একটি বিশেষ ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে। ইতিমধ্যেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সমস্ত সরকারি কর্মীদের সেই ওয়েবসাইটের লিঙ্ক পাঠিয়ে দিতে শুরু করেছে প্রশাসন। যে লিংকের মাধ্যমে ওয়েবসাইটে লগইন করে কর্মীরা নিজেদের নাম, কোথায় চাকরি করেন, বাড়ির ঠিকানা, ভোটার কার্ডের এপিক নম্বর ব্যাঙ্ক একাউন্ট নম্বর সহ বিভিন্ন তথ্য দেবেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা শাসক কৃত্তিবাস নায়েক বলেন, “নির্বাচন কমিশনের তরফে আমাদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছিল।এ বছর সরকারি কর্মীদের নিজেদের তথ্য নির্বাচন কমিশনের একটি বিশেষ ওয়েবসাইটে দিতে হচ্ছে। প্রতিবার যারা ভোটে ডিউটি করেন নির্বাচন কমিশনের তরফে জেলা প্রশাসনের কাছে চিঠি পাঠিয়ে তাদের তথ্য নেওয়া হত। কিন্তু এবছর সেই নিয়ম নেই। সরকারি কর্মচারীরা নিজেদের তথ্য নিজেরাই নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে তুলে দিচ্ছেন।” সব মিলিয়ে লোকসভা নির্বাচনের আগে ভোট কর্মীদের তথ্য সংগ্রহের কাজ শুরু হয়ে গেল রাজ্যের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!