এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সরকারের উন্নয়নের খতিয়ানই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারের মূল মন্ত্র হতে চলেছে

সরকারের উন্নয়নের খতিয়ানই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারের মূল মন্ত্র হতে চলেছে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় নিজেদের জয়ের ধারাকে অব্যাহত রাখতে এবার উন্নয়নে প্রধান ভরসা করছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। কন্যাশ্রী, সবুজসাথী, খাদ্যসাথী ও স্বাস্থ্যসাথীর মত প্রকল্পগুলোর কথা মানুষের কাছে তুলে ধরে যেমন জোর প্রচারে নেমে পড়েছেন রাজ্য শাসকদলের নেতা মন্ত্রীরা, ঠিক তেমনই “ভিশন-21” কে তুলে ধরেও এবারের লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে জোর প্রচার করতে চাইছেন টিম মমতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার সদস্যরা।

কিন্তু কি এই ভিশন টুয়েন্টি ওয়ান? জানা গেছে, 2011 সালে রাজ্যে ক্ষমতায় আসার আগে আর্থসামাজিক পরিকাঠামো উন্নয়নের লক্ষ্যে রাজ্যবাসীকে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তা ক্ষমতায় আসার পর বাস্তবে যেভাবে প্রতিফলিত হয়েছে এই রাজ্যে সেই কথাই সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নিজেদের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চাইছে শাসক দল।

যেখানে একাধিক তথ্যও সাধারন মানুষের কাছে তুলে ধরতে চাইছেন রাজ্যের শাসকদলের নেতা মন্ত্রীরা। কিন্তু কি কি রয়েছে সেই “ভিশন-21?” জানা গেছে, রাজ্যে তৃনমূল সরকার ক্ষমতায় আসবার আগে রাজ্যের পরিকাঠামো উন্নয়নে যত বরাদ্দ ছিল, ক্ষমতায় আসবার পরে তৃণমূল সরকারের আমলে সেই বরাদ্দের পরিমাণ চার গুণেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যদিকে 2010-11 আর্থিক বছরে পরিকাঠামো উন্নয়নে 6845 কোটি টাকা বরাদ্দ হলেও গত 2017-18 অর্থবর্ষে তা 28 হাজার 561 কোটিতে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

পাশাপাশি গ্রাম ও শহরের পরিকাঠামো উন্নয়ন কেন্দ্রের মোদী সরকার নিজেদের বাজেটে 1.41 হাজার কোটি টাকা সেই ক্ষেত্রে অনেকটাই বরাদ্দ বাড়িয়েছে বাংলার তৃণমূল সরকার। এদিকে পানীয় জল, পরিবহন, সড়ক, ভূমি ও ভূমি সংস্কার, বিদ্যুৎ, নগরোন্নয়ন, পুরসভা এবং আবাসনেও রাজ্য সরকারের বরাদ্দ বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় 13.48 শতাংশ। আর 13.25 শতাংশ বরাদ্দ বৃদ্ধি পেয়েছে রাজ্যের উন্নয়নের পরিকল্পনা খাতে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি “ভিশন-21” শিল্প স্থাপনের এক জালানা নীতিকেও তুলে ধরে নিজেদের ভোটব্যাংককে শক্ত করতে চাইছে রাজ্যের শাসক দল। অন্যদিকে রাজ্যের বিভিন্ন ধর্মস্থান গুলিকে উন্নতিকরণের দিক থেকে রাজ্য সরকারের যে প্রচেষ্টা তাও আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে তুলে ধরতে চায় তৃণমূল সরকার। যেখানে ফুরফুরা শরিফ, তারাপীঠ, বক্রেশ্বর, মুকুটমণিপুর, তারকেশ্বর ও চ্যাংড়াবান্ধার জন্য উন্নয়ন পর্ষদও গড়ে তুলেছে রাজ্য সরকার।

এদিকে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় রাজ্যের প্রতিটি জেলায় মাল্টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, বিনামূল্যে ওষুধ এবং সকলের ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দেওয়ায় রাজ্য সরকারের যে উন্নয়ন তার খতিয়ান সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরতে চান টিম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সদস্যরা।

ঘাসফুল শিবিরের একাংশের দাবি, লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে রাজ্যের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরাই আমাদের মূল লক্ষ্য হবে। তবে উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে রাজ্যের শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীরা নিচুতলার কর্মীদের মনে অক্সিজেন জোগানোর চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ভোট বাক্সে তার কি প্রভাব পড়বে এখন সে দিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top