এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লোকসভায় পিছিয়ে থাকা বিধানসভায় ঘুরে দাঁড়াতে নয়া পদক্ষেপ নিচ্ছে তৃণমূল

লোকসভায় পিছিয়ে থাকা বিধানসভায় ঘুরে দাঁড়াতে নয়া পদক্ষেপ নিচ্ছে তৃণমূল

জনতার জনাদেশ মাথায় নিয়ে 2011 সালে রাজ্যে বামেদের সরিয়ে তৃণমূল ক্ষমতায় এসেছিল। কিন্তু দলের একাংশ নেতার মাতব্বরি, সিন্ডিকেট এবং মানুষের সাথে দুর্ব্যবহারই এবারের লোকসভা নির্বাচনে ডুবিয়ে দিয়েছে রাজ্যের শাসকদলকে। গত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল বাংলা থেকে 34 টা আসন পেলেও এবার তাদের ভাগ্যে জুটেছে মোটে 22 টা আসন।

অন্যদিকে বিজেপি 2 থেকে একদম 18 তে পৌঁছে গেছে। আর এহেন একটা পরিস্থিতিতে এতদিন শীর্ষস্তরের নেতাদের গুরুত্ব দেওয়া তৃণমূল দল এখন কর্মীদের বেশি করে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলতে শুরু করেছে। সম্প্রতি ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে কালীঘাটে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমস্ত জেলায় দলীয় সংগঠনকে যেমন সাজানোর চেষ্টা করেছেন, ঠিক তেমনই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে সংগঠনকে আরও মজবুত করার বার্তা জেলা নেতৃত্বকে দিয়েছেন। আর তারই অঙ্গ হিসেবে এবার কর্মীদের সমস্ত অভাব, অভিযোগ শুনতে অভিনব পদক্ষেপ নিলেন চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে হুগলি জেলায় তৃণমূলের ভরাডুবির পাশাপাশি জেলা সদর হিসেবে চুঁচুড়া বিধানসভায় বিজেপির থেকে প্রায় 21 হাজার 16 ভোটে পিছিয়ে থাকে তৃণমূল। যা নিয়ে দলীয় বৈঠকে অসন্তোষ প্রকাশ করে চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদারকে কেন এই খারাপ ফলাফল হল তা অনুসন্ধান করার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতো চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক সমস্ত পৌরসভার কাউন্সিলর, দলীয় কর্মী এবং পঞ্চায়েতের সদস্যদের নিয়ে বৈঠক করলেও অনেকেই বিধায়কের সামনে আসল সমস্যার কথা তুলে ধরতে পারেননি। আর তাই এবার কর্মীদের মনের কথা জানতে ও সমস্ত অভাব অভিযোগ শুনতে চুঁচুড়ার খাদিনা মোড় সংলগ্ন বিধায়কের দলীয় কার্যালয়ে বাইরে একটি অভিযোগ বা পরামর্শ গ্রহণের বাক্স বসানোর উদ্যোগ নিলেন অসিত মজুমদার।

যেখানে সকলেই আসল সমস্যার কথা জানাতে পারবেন। এদিন এই প্রসঙ্গে চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার বলেন, “দু-তিন দিনের মধ্যে এই পরামর্শ গ্রহণের বাক্স বসানো হবে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় আমি ওই বাক্স খুলে জমা পড়া অভিযোগ বা পরামর্শগুলো দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। যদি দলের কোনো সদস্য বা আমার বিরুদ্ধে কারও অভিযোগ থাকে, তাহলে তা জানান। সাধ্যমত সমাধানের চেষ্টা করব।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার সঠিক পদক্ষেপ নিলেও তা নিতে অনেকটাই দেরি হয়ে গেছে। রাজ্যে প্রবল গেরুয়া ঝড়ে এখন তৃণমূল ছেড়ে অনেকেই বিজেপিতে নাম লেখাতে শুরু করেছেন। ফলে সময় থাকতে কর্মীদের সমস্যার কথা না শুনে এখন পরামর্শ বাক্স খুলে কর্মীদের মতামত নিলেও আদৌ দলের একনিষ্ঠ কর্মীরা তৃণমূলের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন কি না, তা নিয়ে একটা সংশয় থেকেই যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!