এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > লোকসভার ‘সাফল্য’ ধরে রাখতে দলীয়স্তরে বড়সড় নির্দেশ শুভেন্দু অধিকারীর

লোকসভার ‘সাফল্য’ ধরে রাখতে দলীয়স্তরে বড়সড় নির্দেশ শুভেন্দু অধিকারীর

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে সারা রাজ্যে তৃণমূলের ফল খারাপ হলেও কংগ্রেস অধ্যুষিত মুর্শিদাবাদে ঘাসফুল ফোটাতে সক্ষম হয়েছেন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু আগামী বিধানসভা নির্বাচনের সময় আসতে না আসতেই যাতে সেই ফলাফল মিলিয়ে না যায়, এবং বিধানসভায় যাতে ভালো ফলাফল করা যায়, তার জন্য এবার দলীয় নেতাকর্মীদের একগুচ্ছ নির্দেশ দিলেন মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক।

সূত্রের খবর, শনিবার মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর এলাকার পঞ্চায়েত প্রধান, উপপ্রধান, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে একটি হলে সভা করেন শুভেন্দু অধিকারী। আর এই সভার পরই তিনি জঙ্গিপুরে একটি সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দেন। যেখানে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন এবং শিল্যানাস করে আগামীদিনে উন্নয়নকে হাতিয়ার করেই ভোট ময়দানে নামতে হবে বলে দলীয় নেতাকর্মীদের বুঝিয়ে দেন তৃণমূলের এই হেভিওয়েট মন্ত্রী।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

জানা যায়, এদিনের এই প্রশাসনিক সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী বেলডাঙা-২, লালগোলা, ভরতপুর-১ এবং খড়গ্রাম ব্লকে ৬টি বন্যানিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এছাড়াও জেলায় পাঁচটি ক্ষুদ্র সেচপ্রকল্প, লঞ্চ এবং বেশ কয়েকটি বাসরুটের উদ্বোধন করার পাশাপাশি বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধন এবং শিলান্যাস করেন।

এদিনকার এই প্রশাসনিক সভায় শুভেন্দু অধিকারীর পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেন মণ্ডল, জেলাশাসক জগদীশপ্রসাদ মীনা, পুলিস সুপার মুকেশ কুমার, মন্ত্রী জাকির হোসেন, এলাকার সংসদ সদস্য খলিলুর রহমান সহ অন্যান্যরা। আগামীদিনে আরও বেশি করে মানুষের পাশে থাকার জন্য শুভেন্দুবাবু জনপ্রতিনিদের উন্নয়ন করার পরামর্শ দেন মন্ত্রী।

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “গত নির্বাচনে জঙ্গিপুরের মানুষ আমাদের বিপুল ভোটে জিতিয়েছিলেন। তাঁদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। উন্নয়ন দিয়ে আমরা ঋণ শোধ করার চেষ্টা করব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এই জেলায় কাজ করতে চাইছেন। কোথাও রাস্তা খারাপ থাকলে, কালভার্ট ভেঙে থাকলে কিংবা অন্য কোনও পরিষেবা ব্যাহত হলে তার তালিকা জনপ্রতিনিধিরা তৈরি করে আমাকে দিন। আমি কাজ করে দেখাব। বাজারগুলি আলোকিত করা হবে। ভাগীরথীর ভাঙন রোধে কাজ করা হবে। ভাঙন রোধে কেন্দ্রীয় সরকার কাজ করছে না। রাজ্যের পক্ষ থেকে সব করা হচ্ছে। এমপি এবং এমএলএদের বলব, কেউ সার্টিফিকেট নিতে এলে তা আপনারা দিয়ে দিন। মানুষকে হয়রান করার দরকার নেই।”

অন্যদিকে বৃষ্টিপাতের অভাবে চাষের কাজ ব্যাপকভাবে ধাক্কা খাওয়ায় এবং পাট চাষিরা সমস্যায় পড়ায় জেলা পর্যবেক্ষক বলেন, “জেলায় এবার ৪৭ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছে। চাষিরা পাট জাঁক দিতে পারছেন না। আগামীদিনে সোলার পাম্প করা হবে। তবে ভূগর্ভস্থ জল যাতে দেদার না তোলা হয় সেদিকটাও আমাদের দেখতে হবে।”

অন্যদিকে এনআরসি নিয়েও এদিন মুখ খোলেন তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, “মুর্শিদাবাদ জেলায় এনআরসি নিয়ে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। সকাল হলেই লোকজন নথি সংগ্রহ কিংবা সংশোধন করতে সরকারি অফিসে ভিড় জমাচ্ছেন। ব্যাপক ভিড়ে কোথাও কোথাও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতিরও আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এনআরসি নিয়ে আপনাদের আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই। তৃণমূল সরকার যতদিন আছে, ততদিন এরাজ্যে এনআরসি হবে না। আপনাদের আতঙ্কের সুযোগ নিয়ে কোথাও কোথাও দালাল চক্র গজিয়ে উঠেছে। তারা ভুল তথ্য পরিবেশন করে মানুষের টাকা হাতানোর চেষ্টা করছে। এদের থেকে দূরে থাকুন।”

পাশাপাশি গোটা বিষয়টিতে প্রশাসনকে নজর রাখারও নির্দেশ দেন তিনি। সব মিলিয়ে লোকসভা নির্বাচনের সাফল্যের ধারা আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ধরে রাখতে এখন থেকেই উন্নয়নের মধ্যে দিয়ে জেলার নেতাদের জনসংযোগ করার পরামর্শ দিলেন মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!