এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > লোকসভার আগে সংখ্যালঘুদের কি কি সুবিধা রাজ্য সরকারের – তালিকা তৈরিতে ব্যস্ত কমিশনের চেয়ারম্যান

লোকসভার আগে সংখ্যালঘুদের কি কি সুবিধা রাজ্য সরকারের – তালিকা তৈরিতে ব্যস্ত কমিশনের চেয়ারম্যান


এতদিন রাজ্যের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ অর্থকে ঠিক কি ভাবে কাজে লাগানো হয়েছে সেই ব্যাপারে সকলের কাছে রিপোর্ট তলব করত রাজ্য প্রশাসন। কিন্তু এবারে লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজার আগেই এই সমস্ত কিছুর বেড়াজাল ভেঙে রাজ্যের বিভিন্ন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষজনের মধ্যে ঠিক কতজনকে সরকারি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে তা আলাদাভাবে উল্লেখ করে রাজ্য প্রশাসনকে রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দিলেন পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান আবু আয়েশ মন্ডল।

যা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন একাংশ। সূত্রের খবর, বুধবার উত্তর দিনাজপুর জেলায় কর্নজোড়ায় জেলাশাসকের দপ্তরে বিবেকানন্দ সভাকক্ষে জেলার বিভিন্ন দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে একটি বৈঠক করেন পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান। আর সেখানেই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য এই জেলায় বিভিন্ন প্রকল্পে ঠিক কতটা অগ্রগতি হয়েছে তা নিয়ে জেলা প্রশাসনের কাছে জানতে চান তিনি।

জানা গেছে, 2017-18 সালে এই জেলায় সংখ্যালঘু উন্নয়নের জন্য আসা বেশিরভাগ টাকাই খরচ হয়ে গিয়েছে। তবে 2018-19 সালে 60 থেকে 70 শতাংশ টাকা এখনও পর্যন্ত খরচ হয়েছে। আর যে টাকাগুলো এখনও খরচ হয়নি সেগুলো যাতে দ্রুত খরচ করা যায় সেজন্য জেলা প্রশাসনিক কর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সংখ্যালঘু কমিশন মূলত বিধানসভার প্রণীত আইন সমূহের মাধ্যমে রাজ্যের সংখ্যালঘুরা সুরক্ষিত আছে কি না সেদিকে নজর রাখে। আর সেই মতো এদিন উত্তর দিনাজপুর জেলায় এসে সেই সংখ্যালঘুদের উন্নয়নে জেলা প্রশাসন ঠিক কতটা কাজ করছে তা যাচাই করেন রাজ্য সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান।

আর জেলা প্রশাসনের সাথে বৈঠকের পরই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান আবু আয়েশ মন্ডল বলেন, “সব সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে আমরা সমান ভাবে গুরুত্ব দিতে বলেছি। এখন থেকে কোন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কতজন সুবিধা পেলেন তা আলাদা আলাদা ভাবে উল্লেখ করে রিপোর্ট পাঠাতে বলা হয়েছে। আমাদের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য সব দরজা খোলা রয়েছে।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সামনেই লোকসভা ভোট। আর সেই লোকসভা ভোটের আগে ইতিমধ্যেই সংখ্যালঘুরা কিছুটা হলেও বিজেপির দিকে ঝুঁকতে শুরু করেছে। আর সেই সংখ্যালঘুদের ভোট যাতে নিজেদের দিকে রাখা যায় সেই জন্যই এবার কি জেলাস্তরে সংখ্যালঘুদের জন্য কি কি উন্নয়ন করা হয়েছে তার রিপোর্ট চেয়ে পাঠাচ্ছে রাজ্য! জল্পনা তুঙ্গে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!