এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লোকসভার আগে স্বস্তি ফিরিয়ে দ্বন্দ্ব ভুলে ক্রমশ একজোট হচ্ছেন শাসক শিবিরের নেতারা

লোকসভার আগে স্বস্তি ফিরিয়ে দ্বন্দ্ব ভুলে ক্রমশ একজোট হচ্ছেন শাসক শিবিরের নেতারা

সম্প্রতি দলের কোর কমিটির এক বর্ধিত সভায় দলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়ে বলেছিলেন, ‘পুরনো কর্মীদের ফিরিয়ে আনুন। তাদের উপযুক্ত সম্মান দিন। তারা আমাদের সম্পদ।’ তবে নেত্রীর সেই বার্তা অনেক জেলার নেতারা এখনও পর্যন্ত না শুনলেও সামনে লোকসভা ভোট থাকার কারণে এখন থেকেই সমস্ত নেতাকর্মীদের এককাট্টা না করলে অচিরেই প্রবল সমস্যার মুখে পড়তে হতে পারে রাজ্যের ঘাসফুল শিবির।

আরর তাই এখন থেকেই নিজেদের ঘর গোছানোর কাজ শুরু করে দিল দক্ষিণ 24 পরগনা জেলা তৃণমূল নেতৃত্বরা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই জেলায় দীর্ঘদিন ধরে শাসকদলের গোষ্টী কোন্দলের কারণে বিগত পঞ্চায়েতে এখানে ছাপ রেখেছে বিজেপি। জেলা তৃণমূল সভাপতি পদে শোভন চট্টোপাধ্যায় থাকলেও এই গোষ্ঠী কোন্দলকে কোনো রকমে ঠেকাতে পারেননি তিনি।

অবশেষে কিছুদিন আগেই এই জেলা তৃণমূল সভাপতি হিসেবে সাংসদ শুভাশিস চক্রবর্তীর হাতে দায়িত্ব তুলে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দায়িত্ব নিয়ে একের পর এক দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক করার পাশাপাশি এবার লোকসভা ভোটের প্রাক্কালে জেলার সংগঠনকে মজবুত করার দিকে নজর দিলেন তিনি।

সূত্রের খবর, গতকাল বিকেলে ক্যানিং রেল স্টেশন ময়দানে ক্যানিং 1 ব্লকের উদ্যোগে এক সভায় দলীয় কর্মীদের অনেককেই সতর্ক করে দেন জেলা তৃনমূলের সভাপতি শুভাশিস চক্রবর্তী। তিনি বলেন, “যারা মঞ্চে বসে বক্তৃতা দিয়ে শুধু বাজিমাতের চেষ্টা করেন, তাদের সঙ্গে নিচুতলার কর্মীদের কোনো যোগাযোগই থাকে না। কিন্তু এই নিচুতলার কর্মীরাই দলকে জিতিয়ে আনার জন্য অনেক পরিশ্রম করেন। তাই সেই কর্মীদের কাছে প্রত্যেককে যেতে হবে। তাদের স্বীকৃতি দিতে হবে।”

রাজনৈতিক মহলের মতে, রাজ্যের প্রায় সিংহভাগ জেলাতেই নিচুতলার কর্মীদের গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না বলে জেলা নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছিল। দক্ষিণ 24 পরগনাও তার ব্যাতিক্রম নয়। আর তাই এ দিনের এই সভা থেকে সেই নিচুতলার কর্মীদের পক্ষ নিয়েই সকলকে সতর্ক করে দিলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি।

যার ফলে জেলার ঘাসফুল শিবিরের নীচুতলার কর্মীদের মনে অনেকটাই অক্সিজেন যোগাবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। অন্যদিকে এদিনের এই সভা থেকে ক্যানিং 1 ব্লক কমিটি ভেঙে দেয় ব্লক তৃনমূলের সভাপতি শৈবাল লাহিড়ী। পাশাপাশি জেলা কংগ্রেসের সভাপতি অর্ণব রায় এদিন তৃনমূলের যোগ দিলে তারা ব্লক তৃনমূলের সহ-সভাপতি হিসেবেও ঘোষণা করা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে এদিনের এই সভা থেকে জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা সাংসদ শুভাশিস চক্রবর্তী বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিল্লি যাওয়ার পথ প্রশস্ত করতে সকলকে একসাথে ঝাপাতে হবে। আমাদের কেন্দ্র থেকে বিজেপিকে হঠাতেই হবে।” সবমিলিয়ে আগামী লোকসভা ভোটের প্রাক্কালে জেলার নেতাকর্মীদের এককাট্টা করতে উদ্যোগী দক্ষিণ 24 পরগনা জেলা তৃণমূলের সভাপতি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!