এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ভোটকর্মীদের সুরক্ষা ও পরিবহনই যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বড় লক্ষ্য ইঙ্গিত দিল নির্বাচন কমিশন

ভোটকর্মীদের সুরক্ষা ও পরিবহনই যে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বড় লক্ষ্য ইঙ্গিত দিল নির্বাচন কমিশন

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ভোটকর্মীদের নিরাপত্তা এবং পরিবহণকে টার্গেট করেই বড়সড় পদক্ষেপ নিল নির্বাচন কমিশন। ভোটকর্মীদের বুথে বুথে পাঠানোর জন্যে এবার ভেহিক্যালস ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান তৈরির করার নির্দেশ দিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। আর সেই নির্দেশ মেনেই জেলায় জেলায় ওই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে তৎপর হয়েছে প্রশাসন।

ডিসিআরসি (ডিস্ট্রিবিউশন কাম রিসিভিং সেন্টার) থেকে প্রতিটি বুথে কীভাবে ভোটকর্মীদের নিয়ে যাওয়া হবে তা নিয়ে অবিলম্বে রিপোর্ট তৈরি করতে জেলায় জেলায় বৈঠক চলছে আপাতত। এ বিষয়ে রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আঞ্চলিক পরিবহন দপ্তরকে।

সংশ্লিষ্ট দপ্তরের বিডিওদের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরই পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরি করা হবে বলেই জানা গিয়েছে। এ ব্যাপারে পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলাশাসক (সাধারণ) অরিন্দম নিয়োগী বলেন,’ভোটকর্মী, সেক্টর অফিসার, মাইক্রো অবজার্ভারদের কীভাবে বুথে নিয়ে যাওয়া হবে, তা নিয়ে আমাদের ভেহিক্যালস ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান তৈরি চলছে। এজন্য ম্যাপিং করা হয়। তারপর বিস্তারিত রিপোর্ট নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হবে।’

নির্বাচন কমিশন সূত্রে আরো জানা গিয়েছে,বাস,মিনিবাস,ছোট চার চাকা গাড়ি,মিনি ট্রাক এবং ট্রাক্টরে করে ভোটকর্মীদের ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে। সাধারণত,ভোটের আগের দিন ভোটকর্মীদের ডিসিআরসি থেকে গাড়িতে চাপিয়ে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।

ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর একইভাবে ভোটকর্মীরা ইভিএম নিয়ে একই গাড়িতে চেপে ডিসিআরসিতে পৌঁছন। সেই চিরাচরিত নিয়ম মেনেই এবারের লোকসভা নির্বাচনেও প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্রে বাস, মিনিবাস, ছোট গাড়ি, মিনিট্রাক রিজার্ভে রাখা হবে। প্রতিকূল এলাকার ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ভোটকর্মীদের নিয়ে যাওয়ার জন্যে ট্রাক্টরের ব্যবহার করা হবে। গত বিধানসভা ভোটে রাজ্যে পূর্ব বর্ধমানের বেশ কয়েকটা বুথে ট্রাক্টরে করে ভোটকর্মীদের পাঠানো হয়েছিল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

বর্তমানে জেলায় জেলায় মোড অব ক্যালকুলেশন ফর পোলিং আরেঞ্জমেন্ট’ তৈরির কাজ চলছে জোরকদমে। পূর্ব বর্ধমান জেলায় খণ্ডঘোষ বিধানসভা কেন্দ্রে মোট বুথ রয়েছে ২৭২টি। আর গাড়ি প্রয়োজন ১০৬টি। এরমধ্যে ৩৭টি বাসে ৪টি করে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের কর্মীদের নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

অর্থাৎ ১৪৮টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ৫৯২জন ভোটকর্মীকে বাসে চাপিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। ওই বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য ২৪টি মিনিবাস লাগবে। প্রতিটি মিনিবাসে ৩ টি করে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের কর্মীদের নিয়ে যাওয়া হবে। অর্থাৎ ৭২টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের মিনিবাসে করে ২৮৮জন ভোটকর্মীকে নিয়ে যাওয়া হবে। ওই সংশ্লিষ্ট বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটকর্মীদের জন্য ছোট গাড়ি লাগবে ৩৮টি। প্রতিটি গাড়িতে ১টি করে মোট ৩৮টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ভোটকর্মীদের নিয়ে যাবে।

এর জন্যে মিনি ট্রাক লাগবে ৪ টি। প্রতিটি মিনি ট্রাকে দু’টি করে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের কর্মীদের নিয়ে যাওয়া হবে। এভাবে ৮টি কেন্দ্রের ৩২জন কর্মী যাবেন মিনি ট্রাকে। আর ৩ টি ট্রাক্টরে ৬টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ২৪জন কর্মী ভোট নিতে যাওয়া হবে। শুধু ভোটকর্মী নয়,পাশাপাশি সেক্টর অফিসার এবং মাইক্রো পর্যবেক্ষকদেরও নিয়ে যেতে হবে। তবে এক্ষেত্রে একটি সমস্যা তৈরি হয়েছে।

গত পঞ্চায়েত ভোটের সময় গাড়ি নেওয়ার পরও অনেক গাড়িমালিক এখনো টাকা পায়নি বলে অভিযোগ তুলেছে অনেকে। এই গাড়িভাড়ার বকেয়া টাকা না পাওয়া পর্যন্ত এবার কেউ গাড়ি দেবেন না বলেই আগেভাগে জানিয়ে দিয়েছেন। আবার কোনো কোনো যায়গায় ভোটকর্মীদের নিয়ে যাওয়ার সময় ড্রেন,টয়লেট ভেঙে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এসবের জেরে ক্ষতিপূরণেরও দাবী তুলেছে অনেকে।

প্রসঙ্গত,নির্বাচন কমিশন আগে থেকেই বিদ্যুৎ,শৌচাগার এবং পরিস্রুত পানীয় জলের অভাবযুক্ত ভোটবুথের তালিকা চেয়ে পাঠিয়েছিল। যাত এবারের নির্বাচনের সময় এইসব পরিষেবা থেকে ভোটকর্মীরা বঞ্চিত না হন।

এরপর ভেহিক্যালস ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান তৈরি করে ভোটকর্মীদের নিরাপদে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারেও নিশ্চিত করল নির্বাচন কমিশন। যেসব বুথে বাস যেতে পারবে না সেখানে মিনিবাস,সুমো জাতীয় গাড়ি,মিনি ট্রাক বা ট্রাক্টর নিয়ে যাওয়া হবে। লোকসভা ভোটের আগো আপাতত এসবের প্রস্তুতি নিয়ে চূড়ান্ত কর্মব্যস্ততা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকদের মধ্যে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!