এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লোকসভা ভোটের আগে কি কি চমক রয়েছে বিজেপির বাজেটে? দেখে নিন এক নজরে

লোকসভা ভোটের আগে কি কি চমক রয়েছে বিজেপির বাজেটে? দেখে নিন এক নজরে

আর কদিন পরেই দেশে অনুষ্ঠিত হবে লোকসভা ভোট। আর এই লোকসভা ভোটের আগে জনমানসে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্রিয় প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দলই। আসন্ন নির্বাচনে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যু তুলে ধরে ইতিমধ্যেই মাঠে নেমে পড়েছে বিরোধীরা।

কৃষক অসন্তোষ থেকে জিএসটি, নোট বাতিল প্রায় প্রতিটি ইস্যুতেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছেন তাঁরা। কিন্তু ঠিক কীভাবে শেষ মুহূর্তে জনসাধারনের মন কারা যায় তার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছে দেশের শাসক শিবির। তাই আগামীকাল অন্তর্বর্তী তথা মোদি সরকারের শেষ বাজেটের দিকে তাকিয়ে রয়েছেন সকলে। সূত্রের খবর, আগামীকাল অন্তর্বর্তী বাজেট পেশ করতে চলেছেন অর্থমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। কিন্তু কেন্দ্রের মোদি সরকারের শেষ বাজেটে ঠিক কি কি চমক থাকতে পারে?

একাংশের মতে, দেশজুড়ে কৃষক অসন্তোষের জেরে বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে প্রবল আন্দোলনে নেমেছে বিরোধীরা। তাই সেই কৃষকদের অবস্থার উন্নতিতে “মিনিমাম গ্যারান্টি স্কিম” নিয়ে আসতে পারে মোদি সরকার। যার জেরে ভূমিহীন চাষীদের সুরক্ষা ব্যবস্থার যেমন সুবিধা হবে, ঠিক তেমনি কৃষিজাত পণ্যের সঠিক দামও পাবেন চাষিরা।

[content_block id=3910

তবে শুধু কৃষি ক্ষেত্রেই নয়, লোকসভা নির্বাচনের আগে মধ্যবিত্ত ভোটব্যাংককে সুরক্ষিত রাখতেও সেদিকে নজর দিতে পারে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। সূত্রের খবর, আগামীকালের বাজেটে সম্ভবত 8 লাখকে কর ছাড়ের স্কেল হিসেবে বেঁধে দিতে চলেছে কেন্দ্র। পাশাপাশি বর্ষিয়ান ও মহিলাদের বিষয়ে একাধিক সুযোগ সুবিধা দেওয়া হতে পারে। সব মিলিয়ে আগামীকাল কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের অন্তর্বর্তী বাজেটে মধ্যবিত্তদের জন্য অনেক ছাড় থাকতে পারে বলেই মনে করছেন অনেকে।

এদিকে জিএসটির জেরে ক্ষুদ্র ও ছোট ব্যবসায়ীদের অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে বিভিন্ন সময়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা যায় বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে। এবার সেই ছোট ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সুরক্ষিত রাখতেও বাজেটে সেই দিকটি তুলে ধরতে পারেন অর্থমন্ত্রী। জানা গেছে, যে সমস্ত সংস্থার আয় 250 কোটির নিচে তাদের 30 থেকে 25 শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়। এবার সেই সমস্ত সংস্থাকে খুশি রাখার জন্য ঋণ বিষয়ে একাধিক নতুন স্কিম আনতে পারে কেন্দ্র।

পাশাপাশি ছোট ব্যবসার ক্ষেত্রে করের বিষয়েও ছাড় দেওয়া হতে পারে। সব মিলিয়ে আগামীকাল কেন্দ্রের মোদি সরকারের বাজেট কতটা জনমুখী হয় এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!